মাটির সংকোচন প্রসারণ ক্ষমতার আচরণ বিষয়ে সেমিনার

সাউদার্ন ইউনিভার্সিটি

| বৃহস্পতিবার , ৩০ জুন, ২০২২ at ১১:২৩ পূর্বাহ্ণ

সাউদার্ন ইউনিভার্সিটির পুরকৌশল বিভাগের উদ্যোগে ‘বিভিন্ন সংমিশ্রণ মিশানোর মাধ্যমে পানির উপস্থিতিতে মাটির সংকোচন প্রসারণ ক্ষমতার আচরণ’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্প্রতি বিভাগীয় প্রধান ও সহকারী অধ্যাপক ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ আবুল হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন পুরকৌশল বিভাগের প্রভাষক ইঞ্জিনিয়ার সাজিদ হাসান।

তিনি পানির উপস্থিতিতে স্মেক্টাইট মাটির সংকোচন প্রসারণ ক্ষমতা চুন ও সিমেন্টের মাধ্যমে হ্রাস সংক্রান্ত গবেষণার ফলাফল সংশ্লিষ্ট পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে উপস্থাপন করেন। স্মেক্টাইট কাদামাটির মতো খনিজ পদার্থ, যা পানি শোষণ করতে পারে। পানি শোষণের ফলে এগুলো আকারে বড় হয়। এগুলো প্রচুর পরিমাণে প্রসারিত হয়। কারণ তাদের দ্বারা আরও পানি শোষিত হয়। দশ শতাংশ বা তার বেশি সম্প্রসারণ অস্বাভাবিক কিছু নয়।

এই আয়তন পরিবর্তনের ফলে একটি বিল্ডিং বা অন্যান্য কাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। সংকোচন, প্রসারণ সমৃদ্ধ এই মাটি প্রায়শই বেসমেন্টের দেয়াল, মেঝে এবং ভিত্তির ক্ষতি করে। যখন কাঠামোর মধ্যে পর্যাপ্ত গতি থাকে, তখন বিল্ডিংয়ের উচ্চতর মেঝেতে ক্ষতি হতে পারে। এই কাদামাটি বিশ্বব্যাপী ব্যাপকভাবে বিস্তৃত আছে এবং এটি অবকাঠামো এবং ভবনের ব্যাপক ক্ষতির উৎস। বর্ষাকালে এরা পানি ধারণ করে ফুলে যায় এবং গ্রীষ্মকালে সেখান থেকে পানির বাষ্পীভবনে সঙ্কুচিত হয়।

ফুলে ওঠা এবং সঙ্কুচিত হওয়ার কারণে আবাসিক ভবন, ফুটপাত ও খালের আস্তরণের মতো হালকা লোড করা সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং কাঠামো মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বিস্তৃত মাটি দ্বারা সৃষ্ট সমস্যাগুলো প্রশমিত করা এবং কাঠামোর ফাটল রোধ করা প্রয়োজন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।