শিক্ষার্থীদের হাতে মোবাইল ফোন দেয়া যাবে না

সীতাকুণ্ড মহিলা কলেজে মা সমাবেশে বক্তারা

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি

শনিবার , ২০ জুলাই, ২০১৯ at ৭:২৯ পূর্বাহ্ণ

বর্তমান সময়ে নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা এক মহামারিতে যেন রূপ নিয়েছে। তাই প্রতিদিন কোনো কোনো নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতার ঘটনা ঘটছে। এসব রোধ করতে হলে প্রথমে সন্তানদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে তুলতে হবে। যার যার সন্তানকে সুরুচি ও ভাল শিক্ষা দিতে পারলে সমাজে সব রকম অপরাধ কমে যাবে। কোনো মেয়ে কোনো প্রকার বিপদে পড়লে ৯৯৯ হেল্প লাইনে ফোন করে দ্রুত সহযোগিতা নিতে পারবে। গত বৃহস্পতিবার সীতাকুণ্ড সরকারি মহিলা কলেজ মিলনায়তনে নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা বন্ধের লক্ষ্যে মা সমাবেশে প্রধান অতিথি সীতাকুণ্ড সার্কেলের এএসপি শম্পা রাণী সাহা এ কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, সমাজে মাদক বন্ধ করতে হবে। শিক্ষার্থীদের হাতে মোবাইল ফোন দেয়া যাবে না। মোবাইল ফোন ব্যবহারের মাধ্যমে অনেক শিক্ষার্থী বিপথগামী হয়। নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা করছে বেশির ভাগই অজ্ঞ মানুষগুলো।
সীতাকুণ্ড থানা আয়োজিত উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন ওসি মো. দেলওয়ার হোসেন। সীতাকুণ্ড বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা পারভীন আক্তারের সঞ্চালনায় মা সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সীতাকুণ্ড সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ জরিনা আখতার, সীতাকুণ্ড বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. দিদারুল আলম জাহাঙ্গীর, সরকারি মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক মো. দিদারুল আলম, প্রভাষক শামীমা নার্গিস, থানা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও অভিভাবক জোবেদা ইয়াসমিন, বিদ্যালয়ের ছাত্রী নাফিসা সিদ্দীকা মুনা ও জান্নাতুল নাঈমা।
এসময় উপস্থিত ছিলেন এসআই মো. আতাউল, সহকারী প্রধান শিক্ষক বাবুল চন্দ্র দে, আব্দুল মমিনসহ কলেজের শিক্ষক, অভিভাবক ও স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা। সভাপতির বক্তব্যে সীতাকুণ্ড থানার ওসি মো. দেলওয়ার হোসেন বলেন, পুলিশের পাশাপাশি প্রতিটি এলাকায় নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা বন্ধে সচেতনতা গড়ে তুলতে হবে। মাদক সেবনের জন্য যুবকরা চুরি ডাকাতি করে থাকে। তাই সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

x