প্রথম দিন স্বস্তিতে টিকেট কিনলেন যাত্রীরা

আজাদী প্রতিবেদন | শনিবার , ২ জুলাই, ২০২২ at ৫:২১ পূর্বাহ্ণ

পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকেট বিক্রির গতকাল প্রথম দিনে চট্টগ্রাম রেল স্টেশনে যাত্রীদের তেমন ভিড় ছিল না। তবে ময়মনসিংহগামী বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেন ও তূর্ণা নিশিতার সব টিকেট বিক্রি শেষ হয়েছে। অপরদিকে একেবারে কম টিকেট বিক্রি হয়েছে সুবর্ণ এক্সপ্রেসের। ১০টি আন্তঃনগর ট্রেনের মধ্যে অন্য ট্রেনগুলোর অর্ধেক টিকেটে বিক্রি হয়েছে। অবশিষ্ট অর্ধেক টিকেট অবিক্রিত রয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার রতন কুমার চৌধুরী।

তিনি আজাদীকে জানান, ১০টি আন্তঃনগর ট্রেনের অর্ধেক টিকেট কাউন্টারে এবং অর্ধেক টিকেট অনলাইনে দেয়া হয়েছে। শুক্রবার প্রথম দিনে দেয়া হয়েছে ৫ জুলাইয়ের টিকেট। তাই টিকেটের চাহিদা একেবারে কম। টিকেটের জন্য যাত্রী সংখ্যা তেমন ছিল না। শনিবার দেয়া হবে ৬ জুলাইয়ের টিকেট। শনিবারও তেমন ভিড় হবে না। রোববার দেওয়া হবে ৭ জুলাইয়ের টিকেট। ওই দিন রোববার প্রচণ্ড ভিড় হবে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। অগ্রিম টিকেটের পাশাপাশি নিয়মিত সকল ট্রেনের টিকেটও যাত্রীদের দেওয়া হবে।

শুক্রবার যাত্রীদের চাপ কম থাকায় অনেকে স্বস্তিতে টিকেট কেটেছেন। তবে চট্টগ্রাম থেকে ময়মনসিংহগামী বিজয় এঙপ্রেস ট্রেনের যাত্রীর অত্যধিক চাপ ছিল। যাত্রীরা অনলাইনে ও কাউন্টারে টিকেট কেটেছেন। ফলে দুই ঘণ্টার মধ্যেই সব টিকেট শেষ হয়ে গেছে।

যাত্রীদের জন্য রেলস্টেশনের কাউন্টারে সাড়ে তিন হাজার এবং অনলাইনে বসে যাত্রীরা বাকি টিকেট কেনার সুযোগ পাচ্ছেন। একজন সর্বোচ্চ চারটি টিকেট নিতে পারছেন। টিকেট কালোবাজারি রোধ করতে সাদা পোশাকের পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কাজ করছে বলেও জানান তিনি।

প্রতি বছরের মতো এবারও ঈদে প্রত্যেক ট্রেনে অতিরিক্ত বগি যুক্ত হবে। ৭ জুলাই থেকে ৯ জুলাই পর্যন্ত চাঁদপুর রুটে প্রতিদিন দুটি স্পেশাল ট্রেন চলবে।