পথজুড়ে গর্ত, দুর্ভোগের সাথে বাড়ছে ক্ষোভও

বারইয়াহাট-করেরহাট সড়ক

মীরসরাই প্রতিনিধি | রবিবার , ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২ at ৬:৪১ পূর্বাহ্ণ

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বারইয়াহাট বাজার থেকে করেরহাট হয়ে বয়ে গেছে পার্বত্য সংযোগ সড়ক। এ সড়কের করেরহাট-শুভপুর পর্যন্ত পুরাতন ট্রাংক রোডটির অবস্থা দিন দিন খারাপই হতে চলেছে। বারইয়াহাট বাজারের রেলগেইট পার হলেই শুরু হয় গর্তময় সড়ক। ইসলাম মার্কেটের সামনের অন্তত অর্ধশত ফুট অংশ গর্তে একাকার। এতে করে জনদুর্ভোগ বেড়েই চলেছে। সাধারণ মানুষের মাঝে তৈরি হচ্ছে ক্ষোভ। এছাড়া চিনকিরহাট বাজারের পর অলিনগর সড়কের মুখের কয়েক অংশেও একই সমস্যায় ভোগান্তি পোহাচ্ছে মানুষ। এদিকে লক্ষিছড়ার দুটি ব্রিজের কাজ ইতোমধ্যে শেষ হলেও দুপাশের ভগ্নদশার চিত্র এখনো লাঘব হয়নি। বিশেষ করে লক্ষিছড়া ব্রিজের পর থেকে করেরহাট বাজারের শুরুতে কয়েকশ ফুট। বৃষ্টি হলেই পুরাতন ফলবাজারের কালি মন্দিরের সামনের অংশে সৃষ্টি হওয়া গর্তে পানি জমে যায়। এতে গাড়ি বিকল হয়ে তৈরি হয় দুর্ভোগ। অন্যদিকে হাবিলদার বাসা পর্যন্ত গর্ত আর ভাঙার শেষ নেই। পুরো বারইয়াহাট করেরহাট সড়কের প্রায় ৫ কিলোমিটারই এমন গর্তে ভরা। ফলে বছরের পর বছর দুর্ভোগ পোহাচ্ছে এখনকার বাসিন্দারা।
এ বিষয়ে করেরহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের তথ্যপ্রযুক্তি সম্পাদক এনায়েত হোসেন নয়ন বলেন, সড়ক ও জনপথের অধীনে উক্ত সড়কের করেরহাট বাজারের বিভিন্ন অংশে কয়েকবছর ধরে আমরা ব্যক্তিগত অর্থায়নে সংস্কার কাজ করেছি। শুধু আমি নয়, আমার এলাকার অনেকেই বাজারের সড়ক উন্নয়নে ভূমিকা রেখেছে। কিন্তু সেই তুলনায় সড়ক ও জনপথের ভূমিকাকে রহস্যজনক বলে মন্তব্য করেন তিনি।
এ বিষয়ে সড়ক ও জনপথের এই অঞ্চলের দায়িত্বরত প্রকৌশলী রোকন উদ্দৌল্লাহ খালেক বলেন, উক্ত সড়কটি গত কয়েক বছর বেশ কয়েকবার সংস্কার করা হয়েছে। শীঘ্রই আবার সংস্কার কাজ শুরু হবে।