দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি রোধ করা হোক

| বুধবার , ৭ ডিসেম্বর, ২০২২ at ৬:১৫ পূর্বাহ্ণ

করোনা মহামারীর সময় থেকে যে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রীর দাম বৃদ্ধির প্রবণতা দেখা দিয়েছিল, তা এখনো অব্যাহত আছে। চাল, ডাল, গম, ভোজ্য তেল থেকে শুরু করে নিত্যপ্রয়োজনীয় প্রতিটি জিনিসের দাম বাড়তে বাড়তে বর্তমানে আকাশ ছুঁয়েছে। বাজারে গিয়ে জিনিসপত্রের অগ্নিমূল্যের কারণে সাধারণ গৃহস্থকে ঘর্মাক্ত হতে হচ্ছে প্রতিনিয়ত। পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়ায় পরিবহনেও মূল্যবৃদ্ধি ঘটেছে আগেই। ফলে এখন যাতায়াত ভাড়া দ্বিগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে।

গ্রামাঞ্চলের উৎপাদনস্থল থেকে বহন করে আনা জিনিসপত্রের ভাড়া বৃদ্ধির ফলে বাজারে শাক-সবজি থেকে শুরু করে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রীর মূল্যবৃদ্ধি ঘটেছে। আকাশ ছোঁয়া এ দ্রব্যমূল্যের জন্য মানুষের মধ্যে হাহাকার সৃষ্টি হচ্ছে। এছাড়া আমাদের মতো সাধারণ পরিবারের শিক্ষার্থীদের দ্বিগুণ ভাড়া গুণে স্কুল-কলেজে যাতায়াত করা এখন অভিভাবকদের মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ফলে নিয়মিত কলেজ করতে না পারায় লেখাপড়ার মারাত্মক ক্ষতি হচ্ছে, যা কাউকে বোঝানো যাচ্ছে না। এক কথায় দিনদিন সবকিছু নিম্নবিত্ত, মধ্যবিত্ত ও নিম্নমধ্যবিত্তদের ধরা ছোঁয়ার বাইরে চলে যাচ্ছে। যদিও এ মূল্যবৃদ্ধির জন্য সরকার রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধকে অজুহাত হিসেবে খাড়া করেছে। তবে বিশেষজ্ঞরা এমন অবস্থার জন্য সিন্ডিকেটকে দায়ী করছে। যে সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে সরকার বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণ করেও ভাঙ্গতে পারছে না। অতএব, সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে আকুল আবেদন, দ্রব্যমূল্যের এ উর্ধ্বগতি রোধ করা হোক।

দীপ্ত দেবনাথ
শিক্ষার্থী
স্যার আশুতোষ সরকারি কলেজ, বোয়ালখালী, চট্টগ্রাম।