জহুর হোসেন চৌধুরী : নিবেদিতপ্রাণ এক কলম সৈনিক

বুধবার , ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ at ৪:৫৯ পূর্বাহ্ণ

জহুর হোসেন চৌধুরী সাংবাদিকতায় এক অবিসংবাদিত নাম। প্রগতিশীল চিন্তাধারার এই কলম সৈনিক তাঁর জীবদ্দশায় বস্তুনিষ্ঠ ও নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গিতে নিরন্তর লিখে গেছেন। পেয়েছেন ব্যাপক জনপ্রিয়তা। আজ তাঁর ৩৯তম মৃত্যুবার্ষিকী।

জহুর হোসেন চৌধুরীর জন্ম ১৯২২ সালের ২৭শে জুন চট্টগ্রামে। ১৯৪২ সালে কলকাতার প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে ইতিহাসে অনার্স সহ স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি। সাংবাদিকতার মাধ্যমেই পেশাগত জীবনের শুরু। প্রথমে যোগ দেন কলকাতার বিখ্যাত পত্রিকা ‘স্টেটসম্যান’এ। এরপর কাজ করেছেন দৈনিক ‘আজাদ’ এবং ইংরেজি সাপ্তাহিক ‘কমরেড’ পত্রিকায়। ১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগের পর কিছুকাল জহুর হোসেন ঢাকা থেকে প্রকাশিত ইংরেজি দৈনিক ‘পাকিস্তান অবজারভার’এ কাজ করেন। তবে সাংবাদিক হিসেবে দীর্ঘকাল কেটেছে দৈনিক সংবাদএ। ১৯৫৪ থেকে ১৯৭১ পর্যন্ত সতেরো বছর তিনি এই পত্রিকায় সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। তীক্ষ্ন মেধাবী এবং বলিষ্ঠ ও সাহসী সম্পাদক হিসেবে তিনি তৎকালীন রাজনীতি নিয়ে সম্পাদকীয় ও বিশ্লেষণধর্মী নিবন্ধ প্রকাশ করেছেন। তাঁর ক্ষুরধার কলম চলেছে পাকিস্তানি চক্রান্তের বিরুদ্ধে, অসামপ্রদায়িকতা আর মানবতাবিরোধী সকল অপতৎপরতার বিরুদ্ধে। স্বাধীনতার পর সংবাদে প্রকাশিত ‘দরবারে জহুর’ শিরোনামে নিয়মিত কলাম তাঁকে বিপুল জনপ্রিয়তা এনে দেয়। জহুর হোসেন চৌধুরী ছিলেন পূর্ব পাকিস্তান রেনেসাঁ সোসাইটি এবং পূর্ব পাকিস্তান সাংবাদিক ইউনিয়ন ও প্রেসক্লাবের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা। এছাড়া প্রগতিশীল বিভিন্ন সংগঠনের সাথে তিনি জড়িত ছিলেন। সাংবাদিকতায় বিশেষ অবদানের জন্য তিনি ১৯৮১ সালে জেবুন্নেসামাহবুবউল্লাহ স্বর্ণপদক লাভ করেন। ১৯৮২তে পান মরণোত্তর ‘একুশে পদক’। ১৯৮০ সালের ১১ই ডিসেম্বর জহুর হোসেন চৌধুরী প্রয়াত হন।

x