সাকিবের বিকল্প পাওয়া সব সময় কঠিন বললেন পাপন

প্রথম টেস্টে খেলা নির্ভর করবে ফিটনেসের ওপর

ক্রীড়া প্রতিবেদক | শনিবার , ১৪ মে, ২০২২ at ১১:১৪ পূর্বাহ্ণ

সাকিবকে বাদ দিয়ে দল গঠন করা সবসময় কঠিন বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তিনি বলেন সাকিব সব সময় দলের প্রধান ভরসা। তাই সাকিবকে দলে নেওয়ার সর্বোচ্চ চেষ্টা করব আমরা। যদিও আমরা জানিনা সেটা পারব কিনা। কারণ করোনার পর মানুষের শরীরে নানা সমস্যা থাকে। গতকাল সাকিব করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ এসেছে। আবার পরীক্ষা করানো হবে। তারপর টিম ম্যানেজমেন্ট সিদ্ধান্ত নেবে। এদিকে সাকিব গতকাল সন্ধ্যায় চট্টগ্রামে এসেছেন। আজ অনুশীলনের সুযোগ রয়েছে তার। সেখানে হয়তো বুঝা যাবে তার ফিটনেস কোন লেবেলে আছে।

গতকাল বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের সাথে দেখা করতে চট্টগ্রামে আসেন পাপন। তিনি বলেন কক্সবাজারে একটি অনুষ্ঠানে যাচ্ছি। ভাবলাম মাঝপথে ক্রিকেটারদের সাথে দেখা না করে যাওয়াটা ঠিক হবেনা। তাই সুযোগটা কাজে লাগাতে তাই চলে এসেছি। পাপন বলেন সাকিবকে বাদ দিয়ে দল গঠন করা কষ্টকর। তখন একজন ব্যাটসম্যান কিংবা একজন বোলার কম নিয়ে খেলতে হয় আমাদের। তিনি বলেন শক্তিশালী শ্রীলংকার বিপক্ষে আমরা পাচ্ছিনা সেরা পেসার তাসকিনকে। অল রাউন্ডার মিরাজকেও পাচ্ছিনা। সাকিবও নেই তাহলে আমরা লড়াই করব কিভাবে। তাই সাকিবকে নিয়ে চেষ্টা থাকবে আমাদের। যদি শেষ পর্যন্ত সাকিব খেলতে না পারে তাহলে আমরা এতদিন যাদের গড়ে তুলেছি তাদের নিয়ে খেলতে হবে। তাদেরকেও সুযোগ কাজে লাগাতে হবে। এদিকে বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নুও সাকিবের ব্যাপারে অপেক্ষা করতে চান। কারন করোনা পরবর্তী তার ফিটনেস কোন পর্যায়ে আছে সেটা যাচাই করতে চান টিম ম্যানেজম্যান্ট। তারপর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে সাকিব খেলতে পারবে কিনা।

গত সোমবার আমেরিকা থেকে দেশে ফিরে করোনা পরীক্ষায় পজেটিভ হন সাকিব। এরপর থেকে তিনি বাসায় আইসোলেশনে ছিলেন। এদিকে সাকিবের করোনা নেগেটিভ হওয়ায় খুশি বাংলাদেশ দলের কোচ রাসেল ডমিঙ্গোও। তবে তিনি আছেন উভয় সংকটে। এখন তিনি সাকিবকে খেলাবেন কিনা তা নিয়ে রয়েছেন দ্বিধায়। কারন সাকিবের ফিটনেস কি অবস্থায় আছে সেটা দেখতে চান আগে। সে জন্য আজ হয়তো ফিটনেস টেস্ট দিতে হবে সাকিবকে। তিনি বলেন সাকিব মাত্রই কোভিড থেকে সেরে উঠেছে। আর বেশি ক্রিকেটও খেলেনি। তাই আগে দেখতে চাই কি অবস্থায় আছে তার শারীরিক অবস্থা। তিনি বলেন হুট করে এসে টেস্ট খেলতে নেমে যাওয়াটা কঠিন। একেতো পাঁচ দিনের ম্যাচ। তার উপর এখন প্রচন্ড গরম।

তাই ঝুকি নেওয়াটা উচিত হবেনা। বাংলাদেশ দলের কোচ বলেন ক্রিকেটাররা ছোটখাট ইনজুরি নিয়ে খেলে থাকেন। কিন্তু কোভিডের সাথে অন্য ইনজুরিকে মেলানো যাবেনা। অনেক কিছুই তাই বিবেচনা করতে হবে। আর সে জন্য আজ শনিবার অনুশীলনে সাকিবকে দেখতে চান কোচ। একই কথা বলেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও। তিনিও ঝুকি নিতে চাননা। কারন খেলতে নামলে সাকিবকে ব্যাটে এবং বলে অনেক চাপ নিতে হবে। সে চাপ কতটা এই মুহূর্তে সহ্য করতে পারবেন সাকিব সেটাই দেখতে হবে আগে। তাই আজ ফিটনেস পরীক্ষার উপর নির্ভর করেেছ সবকিছু।