শিক্ষার্থীদের আলোকিত মানুষ হিসেবে গড়ে তোলাই চসিকের লক্ষ্য : মেয়র

৪ বছরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংখ্যা বেড়েছে সাতটি ভর্তুকি কমেছে ৭ কোটি টাকা

আজাদী প্রতিবেদন

বুধবার , ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ at ১১:২৭ পূর্বাহ্ণ
24

গত চারবছরে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) পরিচালিত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংখ্যা বেড়েছে সাতটি। বর্তমানে ৭১টি স্কুল ও কলেজ পরিচালনা করে সংস্থাটি। এরমধ্যে ৪৮টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ২৩টি কলেজ রয়েছে। অথচ ২০১৫ সালে মাধ্যমিক বিদ্যালয় ছিল ৪৬টি এবং কলেজ ছিল ১৯টি। দায়িত্বগ্রহণের পর সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন শিক্ষার প্রসার, উন্নয়ন ও সংস্কারে নানামুখী উদ্যোগ নেয়ায় বেড়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংখ্যা। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পরিবার পরিকল্পনা ও স্বাস্থ্য রক্ষা স্ট্যান্ডিং কমিটির চার বছর পূর্তি উপলক্ষে সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন অগ্রগতির চিত্র তুলে ধরতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখিত তথ্য জানানো হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে নগর ভবনের কেবি আবদুস সাত্তার মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন চসিকের প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়ুয়া। সংবাদ সম্মেলনে মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন বলেন, আমি দায়িত্ব নেয়ার পূর্বে শিক্ষাখাতে ৪৩ কোটি ভর্তুকি দিতে হতো। বর্তমানে তা ৩৬ কোটি টাকায় এসেছে। ভর্তি ফি ও বেতন ভর্তির কারণে এ ভর্তুকি কমেছে। তবে আমরা যে বেতন নিয়ে থাকি সেটা অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তুলনায় কম।
তিনি আরো বলেন, শিক্ষার্থীদের শুধু ভালো ফল নয়, আলোকিত, সমৃদ্ধ উন্নত মানুষ হিসেবে গড়ে তোলাই আমাদের লক্ষ্য। আমাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাঠ্যবইয়ের পাশাপাশি সাহিত্য-সংস্কৃতি-ক্রীড়া বিষয়ে উদ্বুদ্ধ করা হয়। তিনি বলেন, বিগত চার বছরে যে অর্জন হয়েছে তা অতীতের চেয়ে বেশি। এটা আমি চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলতে পারি। মানও বেড়েছে। মান বাড়েনি বলে ঢালাওভাবে বলা উচিত না। অনেকে না বুঝে উদ্দেশ্যমূলক সমালোচনা করে। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র বলেন, প্রতিবছর ২০০ জন গরীব শিক্ষার্থীকে আমাদের কম্পিউটার ইনস্টিটিউট থেকে প্রশিক্ষণ দিচ্ছি। এসময় তিনি শিক্ষার্থীদের প্রণোদনা দিতে আগামীবছর থেকে বৃত্তি দেয়ারও ঘোষণা দেন।
গণমাধ্যমকর্মীদের সহযোগিতা চেয়ে তিনি বলেন, প্রত্যেকটা রাস্তা, চ্যালেঞ্জ কী কী আছে আপনাদের জানাব। কিছু হ্যাজার্ড আছে। আপনারা উদারভাবে সহযোগিতা করুন। যদি আপনারা সহযোগিতা করেন, পাশে দাঁড়ান সবই সম্ভব। গৃহকর প্রসঙ্গে বলেন, আপনারা সহযোগিতা করলে ভালোভাবে করতে পারতাম। আপনারা তো অনেকেই ভাড়া বাসায় থাকেন। একটু দেখবেন যে, বাড়িওয়ালাদের ভাড়া দেন তারা সিটি কর্পোরেশনে কত টাকা ভাড়া দেখিয়ে কত ট্যাক্স দেন। ১৫ হাজার টাকার ভাড়া সাত হাজার বললেও তো চলে। কিন্তু তারা বলেন, চার হাজার টাকা। খুলশির বাড়িতেও যদি বলে ভাড়া চার হাজার টাকা!। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পরিবার পরিকল্পনা ও স্বাস্থ্য রক্ষা স্ট্যান্ডিং সভাপতি নাজমুল হক ডিউক, ওয়ার্ল্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, হারুর অর রশিদ, মাজহারুল ইসলাম চৌধুরী, হাসান মুরাদ বিপ্লব।
প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালন : সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে সিটি মেয়রের নির্দেশে শিক্ষা বিভাগ ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। তার মধ্যে রয়েছে চট্টগ্রাম মহানগরীর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে নবম, দশম, একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রধানমন্ত্রীর জীবন ও কর্মের উপর কুইজ প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ। ওইদিন বিকেল ৪টায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, চট্টগ্রামে সিটি কর্পোরেশন কেন্দ্রীয়ভাবে প্রধানমন্ত্রীর ৭৩তম জন্মদিন পালন করবে এবং এতে কুইজ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে মেয়র পুরস্কার বিতরণ করবেন।

x