ভালো নেই ইয়াসমিন

এসিড সন্ত্রাস

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি | শনিবার , ১৪ মে, ২০২২ at ১০:৪৩ পূর্বাহ্ণ

এসিডে ঝলসে যাওয়া রাঙ্গুনিয়ার কিশোরী ইয়াসমিন আক্তার (২০) ভালো নেই। চিকিৎসকরা বলেছেন তার শরীরের ৪৫ শতাংশ পুড়ে গেছে। বর্তমানে ঢাকা শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটে আইসিইউতে তার চিকিৎসা চলছে। চিকিৎসকের পরামর্শে গত ৭ মে থেকে সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছে ইয়াসমিন।

গত ৪ মে রাতে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বেতাগী ইউনিয়নের ডিঙ্গেল লোংগা এলাকার আবুল বাশারের মেয়ে ইয়াসমিনের ওপর দাহ্য পদার্থ নিক্ষেপ করে ঝলসে দেওয়া হয়। এই ঘটনায় তার কথিত প্রেমিক নুরুল আজিমকে (২৮) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঢাকায় নেওয়ার আগে ইয়াসমিন চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন ছিলেন। এই ইউনিটের প্রধান ডা. রফিক উদ্দিন আহমেদ বলেন, ইয়াসমিনের শরীরে দাহ্য পদার্থ নিক্ষেপ করা হয়েছিল। তার শরীরে ৪৫ শতাংশ পুড়ে গেছে। শারীরিক অবস্থা ভালো না। তাই উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় স্থানাস্তর করা হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার বিকালে কথা হয় ইয়াসমিনের বড় ভাই মো. আবু তাহেরের সাথে। তিনি বলেন, আমরা দুই ভাই ও পাঁচ বোনের মধ্যে সবার ছোট ইয়াসমিন। সে সেলিমা কাদের চৌধুরী কলেজে পড়াশোনা করতো। দীর্ঘদিন প্রবাস জীবন কাটিয়ে ছুটিতে এসেছিলাম বোনকে বিয়ে দেবো বলে। কিন্তু তার আগেই লম্পট আজিম আমার বোনের জীবনটা ধ্বংস করে দিয়েছে। এখন পর্যন্ত আমার বোনের সফল হার্ট অপারেশন করা হয়েছে। এবার খাদ্যনালী অপারেশনের প্রক্রিয়া চলছে। লিভারসহ শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ ক্ষতি হয়েছে বলে চিকিৎসকরা বলেছেন। প্রতিমূহুর্তে মৃত্যু যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছে ইয়াসমিন। বোনের এই অবস্থা আর দেখতে পারছি না। আমরা জড়িত আজিমের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবী করছি।