পণ্ডিত বিজন কুমার চৌধুরীর স্মরণানুষ্ঠান

আনন্দ প্রতিবেদক

বৃহস্পতিবার , ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ at ২:৪৪ পূর্বাহ্ণ
44

আনন্দী সঙ্গীত একাডেমির আয়োজনে ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ তারিখ শনিবার, সন্ধ্যা ০৬.৩০ টায় এ.কে. খান স্মৃতি মিলনায়তন, ফুলকি, চট্টগ্রামে দেশবরেণ্য তবলাগুরু পণ্ডিত বিজন কুমার চৌধুরী’র ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে স্মৃতিচারণ ও শাস্ত্রীয় সংগীতানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়ে গেল। শুরুতেই পণ্ডিত বিজন চৌধুরীর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান আনন্দী একাডেমির শিক্ষার্থীরা। এরপর অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন সেতার শিল্পী মিহির কানুনগো। জেলা প্রাণিসম্পদ অফিসার ডা: মোহাম্মদ রেয়াজুল হক এর সভাপতিত্বে স্মৃতিচারণ পর্বে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন একুশে পদকপ্রাপ্ত বাঁশী শিল্পী উস্তাদ ক্যাপ্টেন আজিজুল ইসলাম, সঙ্গীত ভবনের অধ্যক্ষ কাবেরী সেনগুপ্তা, পণ্ডিত কিরণময় চৌধুরী প্রমুখ। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্ব শুরু হয় পণ্ডিত বিজন চৌধুরীর সুযোগ্য শিষ্য তবলা শিল্পী সুরজিৎ সেনের পরিচালনায় সমবেত তবলা লহড়া পরিবেশন করেন আনন্দী একাডেমির শিক্ষার্থীরা। ক্ষুদে তবলা শিল্পীদের হাতের মিষ্টি বোলের তেহাই, পরন, রেলা পরিবেশনা খুবই প্রাণবন্ত ছিল। এরপর শিল্পী ফাল্গুনী বড়ুয়া অলির পরিচালনায় সমবেত শাস্ত্রীয় সংগীত পরিবেশন করেন সুরসপ্তক সংগীত বিদ্যাপীঠের শিক্ষার্থীবৃন্দ। তবলায় সঙ্গত করেন শিল্পী রাজীব চক্রবর্ত্তী। রাগের রাজা দরবারী এবং রাজাদের রাগ হল দরবারী। সেই দরবারী রাগে বেহালায় করণ সুর তোলেন ডা: সন্দিপন দাশ। তবলায় সঙ্গত করেন শিল্পী সুরজিৎ সেন। পণ্ডিত স্বর্ণময় রচিত এবং ইমন রাগে সুরারোপিত ‘সুর দাতা নাহি আয়ে, মোর ভবন মে’ বন্দিশটি পরিবেশন করেন পণ্ডিত স্বর্ণময় চক্রবর্ত্তীর শিষ্য শিল্পী রাজীব দাশ। একতাল বিলম্বিত লয়ে তার সুরেলা আলাপ উপস্থিত দর্শক শ্রোতাদের ভালো লাগাতে সক্ষম হয়েছে। তবলায় পরিমিত সাথ-সঙ্গত করেছেন শিল্পী সুরজিৎ সেন। হারমোনিয়ামে ছিলেন শিল্পী প্রমিত বড়ুয়া এবং তানপুরায় ছিলেন শিল্পী সম্পদ বড়ুয়া। রাগ শিবরঞ্জনী পরিবশেন করে পণ্ডিত বিজন চৌধুরীকে শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করেন শিল্পী মনীশ চৌধুরী। তবলায় পণ্ডিত কিরণময় চৌধুরী সহযোগিতা করেন। সঞ্চালনায় ছিলেন তৃষণ সেনগুপ্তা।

x