এডভোকেট সুলতান আওয়ামী রাজনীতির দুঃসময়ের উজ্জীবিত মশাল

দক্ষিণ জেলা আ. লীগের স্মরণসভায় বক্তারা

আজাদী প্রতিবেদন | শুক্রবার , ১ জুলাই, ২০২২ at ৬:২১ পূর্বাহ্ণ

সিটি কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি, সিটি সুলতান খ্যাত এডভোকেট সুলতান উল কবির চৌধুরী একজন সাহসী নেতা ছিলেন। ছাত্র রাজনীতির গন্ডি পেরিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের নগর এবং কেন্দ্রীয় যুবলীগের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন। বঙ্গবন্ধুর হত্যার প্রতিবাদ করতে গিয়ে খন্দকার মোশতাকের পেটুয়া বাহিনীর হাতে গ্রেপ্তার হয়ে অমানবিক নির্যাতনের শিকার হন। গতকাল চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এডভোকেট সুলতানুল কবির চৌধুরীর ৮ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ অফিস চত্বরে আয়োজিত স্মরণসভায় বক্তারা উপরোক্ত কথা বলেন।

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে স্মরণসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দীন চৌধুরী, বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ প্রশাসক এম এ সালাম। বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, সহ-সভাপতি আবুল কালাম চৌধুরী, শ্রমিক নেতা শফর আলী, আওয়ামী লীগ নেতা এড. জহির উদ্দীন, প্রদীপ দাশ, মোসলেহ উদ্দীন মনসুর, নুরুল আবছার চৌধুরী, নুরুল আলম, খোরশেদ আলম, বোরহান উদ্দীন মো: এমরান, আবুল কালাম আজাদ, আব্দুল গফুর, মোহাম্মদ জোবায়ের, মরহুমের সন্তান বাঁশখালী উপজেলা চেয়ারম্যান চৌধুরী মো: গালিব সাদলী প্রমুখ।

স্মরণ সভায় মাহতাব উদ্দীন চৌধুরী বলেন, সুলতানুল কবির চৌধুরী যেমন ছিলেন সাহসী নেতা-তেমনি ছিলেন দলের জন্য ত্যাগী। বঙ্গবন্ধুর আর্দশের কর্মী হিসেবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও জননেত্রী শেখ হাসিনার আদর্শে সব সময় নিবেদিত ছিলেন। তার মতো এমন ত্যাগী নেতা খুব কমই আছে। দলের এমন আদর্শবান নেতাকে আমাদের সব সময় স্মরণে রাখা উচিত। এম এ সালাম বলেন, সুলতানুল করিব চৌধুরী আওয়ামী রাজনীতির একটি আদর্শের নাম। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দলের দুঃসময়ে রাজপথে সক্রিয় ছিলেন। জীবনের শেষদিন পর্যন্ত দলের প্রতি দায়িত্ব পালন করে গেছেন। মফিজুর রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর দেশে যে কয়জন নেতা নিজের জীবন তুচ্ছ করে রাজপথে প্রতিবাদ করেছিলেন সুলতানুল কবির চৌধুরী ছিলেন তাদের অন্যতম। রাজনীতিতে সুলতানুল কবির চৌধুরীর মতো নীতিবান-আদর্শবান নেতা খুব কম আছে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে তিনি কখনো আপোষ করেননি।