আ.লীগ নেতা জিতেনকে মারধর, ইউপি সদস্য ইন্দ্রজিৎ গ্রেফতার

পটিয়া প্রতিনিধি | শনিবার , ১৪ মে, ২০২২ at ৩:০৪ অপরাহ্ণ

পটিয়ায় ইফতার পার্টিতে আওয়ামী লীগ নেতা জিতেন কান্তি গুহকে খুঁটিতে বেঁধে মারধরের মূল হোতা মামলার অন্যতম আসামি ও সাবেক ইউপি সদস্য ইন্দ্রজিত চৌধুরী লিও(৪৫)কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আজ শনিবার(১৪ মে) সকালে নগরের আসকার দিঘীর পাড় এলাকার রাউজান আওয়ামী লীগ নেতা চন্দন দে’র বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। চন্দন দে রাউজান উপজেলার পূর্ব গুজরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক।

পটিয়া থানার ওসি (তদন্ত) রাশেদুল ইসলাম জানিয়েছেন, ইন্দ্রজিৎ চৌধুরীকে নগরীর আসকার দিঘীর পাড় এলাকার রাউজান উপজেলার পূর্ব গুজরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক চন্দন দে’র ফ্ল্যাট থেকে গ্রেফতার করা হয়। সে ওই ঘটনার মূল হোতা। ঘটনার সময় ইন্দ্রজিতই প্রথমে আওয়ামী লীগ নেতা জিতেনের ওপর হামলা চালায়।

ঘটনার পর থেকে পুলিশি গ্রেফতার এড়াতে ইন্দ্রজিৎ চৌধুরী লিও চন্দন দে’র বাসায় অবস্থান করে আসছিল। ঘটনার পেছনে আধিপত্য বিস্তার ছাড়াও কোনো কারণ আছে কি না তা বের করার জন্য আদালতে রিমান্ড আবেদন করা হবে। তাকে আদালতে প্রেরণ করা হচ্ছে বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা রাশেদুল ইসলাম।

পুলিশ জানায়, গত ২৯ এপ্রিল ইফতার পার্টিতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে উপজেলার হাইদগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি জিতেনকে খুঁটির সঙ্গে বেঁধে মারধর করার পর স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বিএম জসিম, তার ছেলে ওয়াসি এবং ইন্দ্রজিৎ সহ সাতজনের নামে মামলা হয়।

এর পর চেয়ারম্যান জসিম, তার ছেলেসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আর ঘটনার পরই গা ঢাকা দেন ঘটনার মূল হোতা ইন্দ্রজিৎ সহ বাকিরা। তাদের ধরতে দফায় দফায় অভিযান চলছে।