আন্তর্জাতিক সেমিনারে সিআইইউর তিন শিক্ষক

| বৃহস্পতিবার , ১২ মে, ২০২২ at ৫:৩৩ অপরাহ্ণ

করোনাকালীন বিশ্বের অনেক বড় আর্থিক প্রতিষ্ঠানের উৎপাদনে ঘটেছে ছন্দপতন। তবে এই বিপর্যয় কেবল বড় দেশগুলোতে নয়, বাংলাদেশসহ উন্নয়নশীল অনেক দেশের শিল্পখাতে নেমে এসেছে স্থবিরতা। এই লোকসান কাটিয়ে উঠতে বিশ্বের ছোট-বড় দেশগুলোকে তাই এখন থেকেই সহযোগিতামূলক মনোভাবের ভিত্তিতে এগিয়ে আসতে হবে।

চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি বিজনেস স্কুল (সিআইইউ বিজনেস স্কুল), ভারতের নিউদিল্লীর এপিজে স্কুল অব ম্যানেজমেন্ট এবং ফ্রান্সের বিখ্যাত ইএম নরম্যান্ডি বিজনেস স্কুল আয়োজিত ‘১১তম ব্যবস্থাপনা অনুশীলন এবং গবেষণা’ বিষয়ক আন্তর্জাতিক সেমিনারে এমনি কথা বলেছেন বক্তারা।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে অনলাইনে বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১০টি দেশের প্রতিনিধিরা এই সেমিনারে অংশ নেন। অনুষ্ঠানে সিআইইউ বিজনেস স্কুলের তিন শিক্ষকও অংশ নিয়ে প্রশংসা কুড়িয়েছেন।

এতে উদ্বোধন অনুষ্ঠানের মূল বক্তা ছিলেন সিআইইউ বিজনেস স্কুলের ডিন অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ নাঈম আবদুল্লাহ। ফাইন্যান্স নিয়ে টেকনিক্যাল সেশনের আলোচনা পর্বের সভাপতিত্ব করেন সহযোগী অধ্যাপক ড. ইমন কল্যাণ চৌধুরী। ‘বাংলাদেশের দেউলিয়া আইন ১৯৯৭: কিছু সংস্কার প্রস্তাব’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রভাষক সায়ীদ হাসান।

সেমিনারে বাংলাদেশ ছাড়াও করোনাকালীন শিল্প-অর্থনৈতিক খাতের নানান চিত্র তুলে ধরেন আমেরিকা, সেনেগাল, ভারতসহ বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা। এই সময় তারা করোনা পরবতীকালীন নেতৃত্ব এবং উদ্যোগের বিষয়ে গুরুত্ব দেওয়ার কথা জানান। অনুষ্ঠানে ফাইন্যান্স, স্ট্র্যাটেজিক ম্যানেজমেন্ট, এইচআরএম, মার্কেটিংসহ একাধিক সেক্টর নিয়ে আলোচনা করেন বক্তারা।