অধ্যাপক রতন সিদ্দিকীর বাসায় হামলা

| শনিবার , ২ জুলাই, ২০২২ at ৫:৪২ পূর্বাহ্ণ

বাংলা একাডেমি পুরস্কারপ্রাপ্ত নাট্যকার অধ্যাপক ড. রতন সিদ্দিকীর উত্তরার বাসায় জুমার নামাজের পর একদল লোক হামলা করেছে বলে অভিযোগ করেছে তার পরিবার। গতকাল শুক্রবার জুমার নামাজের পর উত্তরা ৫ নম্বর সেক্টরের ৬/এ সড়কে এ ঘটনা ঘটে। তবে পুলিশ বলছে, মোটরসাইকেল রাখাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের মধ্যে ঝগড়া হয়েছে, পরে বিষয়টি ‘মিটমাট’ হয়ে যায়। খবর বিডিনিউজের।

জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) এক সময়ের দায়িতপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান অধ্যাপক রতনের মেয়ে পূর্ণাভা সিদ্দিকী বলেন, জুমার নামাজের সময় তার বাবা ও মা গাড়ি নিয়ে বাসায় ঢুকছিলেন। বাসার সামনে একটা স্কুল, মাদ্রাসা ও মসজিদ রয়েছে। বাসার ফটকের সামনে সবজির ভ্যান ও মোটরসাইকেল রেখে সড়ক আটকিয়ে রেখেছে। তাছাড়া মুসল্লিদের কারণে পুরো সড়ক বন্ধ প্রায়। পূর্ণাভা বলেন, গাড়ির চালক দুবার হর্ন দেওয়ার পর সেখানে নামাজে আসা মানুষ ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। মা ও বাবা গাড়ি থেকে বের হয়ে বিষয়টি জানতে চাইলে তারা আরও ক্ষিপ্ত হয়; বাবাকে ধাক্কা মারে ও পেটে আঘাত করে।

তার ভাষ্য, মায়ের কপালে টিপ পরা দেখে তারা সাম্প্রদায়িক কথাবার্তা বলতে শুরু করে আর অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। মা কোনোমতে বাসায় ঢুকে পড়লেও তারা বাড়ির ফটক প্রায় ভেঙে ফেলে। দীর্ঘ সময় পর পুলিশের সহায়তা পাওয়ার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ৯৯৯ এ ফোন দিচ্ছি, কিন্তু কোনো রেসপন্স পাচ্ছি না। পরে পরিচিত পুলিশ ও র‌্যাবকে ফোন করলে দেড় ঘণ্টা পর তারা আসে। পুলিশ আসার সঙ্গে সঙ্গে সবাই চলে যান, আর যারা এতক্ষণ উসকানি দিচ্ছিল- তারা বলতে শুরু করেন, কিছুই হয়নি, একটু ভুল বুঝাবুঝি হয়েছে।

হেনস্তার কথা বলতে গিয়ে রতনকন্যা পূর্ণাভা বলেন, দেড় ঘণ্টায় সাম্প্রদায়িক এমন কোনো কথাবার্তা নেই যে তারা আমাদের বলেননি। কুকুরকে প্রায়ই খাবার দেন পূর্ণাভা, তা নিয়েও কথা শোনানো হয়েছে বলে জানালেন তিনি। তিনি বলেন, মুসল্লিরা এই কথা বলেও বাড়িতে ঢিল মেরেছে। বলেছে, এই বাড়ির মেয়েরা কুকুর পালে-নাস্তিক।