আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০১৯

দুঃস্বপ্ন

ফণা তোলে দুঃসময় কেউটে মুহূর্তগুলো কালকূট উৎসবের খুঁটিপাতে চাদোয়া টাঙায়। কিছু লোক উঁকি ঝুঁকি দেয়, দেখে, কেমন জমেছে...

অহংকার

তোমাকে কিছুই দোবো না। না ঘর না সংসার কিংবা সংসার সমৃদ্ধ কোনো উত্তম পুরুষ। পাখিরাও পাখিদের সহচর্য খোঁজে যেমন ডাহুক কিংবা ঘুঘু পাখি আর প্রাণিদের এক বিদঘুটে স্বভাব এসব,...

এ এক গাছের কথা

এ এক গাছের কথা ও কাহিনি হঠাৎ পাওয়া কাহিনি না বলে গল্প বলা ভালো গাছের বুকের ভেতরে ঘুমাচ্ছে গাছ চাঁদের বুকের ভেতরে ঘুমাচ্ছে চাঁদ ছায়ার ভেতরে শুয়ে আছে...

মৃত্যুক্রান্তা

১. প্রেমের তলানীটুকু করি পান সলাজ পাঁপড়িময় গোলাপের সুবাসের মতো, আর ভাবি- দুরন্ত গোলাপের ক্রন্দন কতোটাই বিধিসম্মত! ২. তোমাকে আহরণ করি গোলাপি ময়ূরের ওষ্ঠ থেকে...

বিজয়ী সম্রাট

তোমার সাথে হবে না আমার বন্ধুত্ব, ঘাতক তুমি এবং তোমার সংসার। ভেঙে যাবে আমার ভালোবাসা, ভালোবাসার সবুজ মিনার। সংকুচিত হবে বিশ্বাসের সাঁকো বসন্ত ও সজীব প্রহর। তোমার আমার সাথে ভয়াবহ...

আমি আর এগুতে পারিনি

শহীদ মিনারে রঙের প্রলেপ মাখা ডোরা কাটা গ্রীল তারই ফাঁকে কারা যেন সরোষে তাকায় পলকহীন চোখের দৃষ্টি যেন শানিত শার্দুল ভয়ে বিহ্বল আমি আর এগুতে পারিনি। হাতের মুঠোয়...

ফিরতে চাই দূরগ্রাম শূন্যতায়

প্রতিদিনই ফিরতে চাই দূরগ্রাম শূন্যতায় প্রতিদিনই ফিরতে চাই অপেক্ষার বৃষ্টি হয়ে মেঘের ভেলায় প্রতিদিনই বিচ্ছিন্ন হই পথে বিপথে পা ফেলে ঘন কুয়াশায় প্রতিদিনই হারাই সাদাসিধে শিশুর গড়ন...

একটুখানি ভাসা ভাসা

প্রস্তুত হয়ে বেরিয়ে পড়লাম বুকের ভেতর উচ্চারণের ব্যবচ্ছেদ স্তব্ধ ও লাশের চিহ্ন নিঃশব্দে গৃহত্যাগ করে ফুটপাতে কবর বানিয়ে রেখেছেন নিরাপদবাসী একজন গ্রামপুরুষ তিনি আগুন হয়ে ভেসেছিলেন বাতাসে বাতাসে মুখমণ্ডল স্বপ্নসমূহের লিপি তুলেছে- শত...

ভগ্নাংশের শেকড়

প্রাণের একটি অংশ ছিলে তুমি আমার কোন হাডের যন্ত্রণা নেই রাত জাগার আরামে আমি শুয়েছিলাম রাত আমাকে তারকা খচিত একটা আকাশ দিয়েছে ভেবেছিলাম এইবার জলের পাশে গিয়ে বসব- ও ফল্গুধারা...

রৌদ্র পাদটিকা

হারানোর কিছু কি ছিলো অথবা ছিঁড়ে ফেলার ! রৌদ্র যবনিকা খুঁজে খুঁজে পাদটিকা লিখি বর্বর বাতাসে হননের গল্প কথা শুনিয়ে যায় হিরন্ময় সময়ে স্মৃতিরা আজো আছে সেইরকম। কিছু...

আরো খবর

x