৯৯৯ এ ফোন করে বাড়তি ভাড়া ফেরত পেলেন যাত্রীরা

আজাদী অনলাইন

শনিবার , ১০ আগস্ট, ২০১৯ at ৬:৩১ অপরাহ্ণ
338

নগরীর অক্সিজেন থেকে ফটিকছড়ির বিবিরহাট যাচ্ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মহি উদ্দিন। এ পথের নিয়মিত বাস ভাড়া ৪০ টাকা হলেও আজ শনিবার (১০ আগস্ট) ঈদ উপলক্ষে তার কাছ থেকে আদায় করা হয় ১০০ টাকা।

ভাড়া কম রাখতে বাসচালক ও তার সহকারীকে কয়েক দফা অনুরোধ করার পরও সাড়া না পেয়ে শেষ পর্যন্ত জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯ এ কল করে সহায়তা চান তিনি। ফলও পেয়ে যান তিনি।

ফটিকছড়ি থানা পুলিশের সহায়তায় মহি উদ্দিনসহ ওই বাসের সব যাত্রী ফেরত পান বাড়তি ভাড়া। বাংলানিউজ

মহি উদ্দিন জানান, ঈদে ঘরমুখো মানুষের ভিড়কে পুঁজি করে দ্বিগুণ ভাড়া আদায় করছিলেন বাসচালক ও তার সহকারী। ভাড়া কম রাখতে অনুরোধ করার পরও তারা শোনেনি। পরে জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯ এ কল করে সহায়তা চান তিনি।

তিনি বলেন, ‘কল দেয়ার পর পরিচয় দিয়ে বাড়তি ভাড়া নেয়ার অভিযোগটি জানাই। তারা আমাকে চট্টগ্রাম কন্ট্রোল রুমের নম্বর দেন। কন্ট্রোল রুমে পুরো ঘটনাটি বলি। এর পরপরই ফটিকছড়ি থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সঙ্গে আমাকে যোগাযোগ করিয়ে দেয়া হয়। ওই কর্মকর্তা বাসের নাম, অবস্থান জানতে চান। এরপর ফোর্স পাঠিয়ে আমাদের কাছ থেকে নেয়া বাড়তি ভাড়া ফেরত নিয়ে দেন।’

ফটিকছড়ি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আরিফুর রহমান বলেন, “দুপুরে ৯৯৯ থেকে ফোন পেয়ে আমরা অভিযোগকারী ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ করি। পরে তার দেয়া অভিযোগের সত্যতা পেয়ে চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি রোডের ‘শাহেন শাহ’ নামে ওই বাসের যাত্রীদের কাছ থেকে নেয়া বাড়তি ভাড়া ফেরত নিয়ে দিই।”

x