১১ কোটি টাকা ব্যয়ে রাউজানে নির্মিত হচ্ছে ট্রমা সেন্টার

মীর আসলাম, রাউজান

শনিবার , ৯ নভেম্বর, ২০১৯ at ৮:৩৫ পূর্বাহ্ণ
247

সড়ক পথে দুঘর্টনায় আহতদের দ্রুত চিকিৎসা নিশ্চিত করতে চট্টগ্রাম-রাঙামাটি মহাসড়ক পথের রাউজান অংশে ট্রমা সেন্টার প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। রাউজান পৌরসভার ঢালারমুখ এলাকায় ১১ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে বিশেষায়িত এই সেন্টার। এক একর জমির উপর প্রতিষ্ঠিত এই প্রতিষ্ঠানে থাকছে চিকিৎসার আধুনিক সব যন্ত্রপাতি।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায় রাউজানের সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীর প্রচেষ্টায় এই কেন্দ্রটি রাউজানে প্রতিষ্ঠা পাচ্ছে। এলাকার সূত্র সমূহ থেকে জানা যায় প্রতিবছর রাঙামটি ও কাপ্তাই সড়কসহ আশেপাশের উপজেলা সমূহে সড়ক পথে বহু মানুষ হতাহত হয় দুর্ঘটনা কবলিত হয়ে। দুর্ঘটনায় পতিতদের তাৎক্ষণিক হাসপাতালে পাঠাতে বিলম্ব জনিত কারণে অনেকেই মারা যায়। এই বিষয়টি মাথায় রেখে রাঙামাটি মহাসড়কের পাশে ট্রমা সেন্টার প্রতিষ্ঠার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী ফারুক আহমদ জানিয়েছেন গত ৩ মার্চ এই প্রকল্প বাস্তবায়নে সর্বনিম্ন দরদাতা হিসাবে একটি জয়েন্টভেঞ্চার কোম্পানীকে কার্যাদেশ দেয়া হয়েছে। গত ৩ নভেম্বর এই প্রকল্পের ভিত্তি স্থাপন করেছেন রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি। ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন কালে উপস্থিত এই প্রকৌশলী জানান নির্ধারিত মেয়াদ কালে কাজ শেষ করার লক্ষ্য নিয়ে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান কাজ শুরু করবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে এই সুফল রাঙামাটির জেলার আওতাধীন মানুষও এর সুফল পাবে। রাউজান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এহেছানুল হায়দর চৌধুরী বলেছেন, রাউজান উপজেলায় ৩১ ও ৫০ শয্যার আরো দুটি হাসপাতাল রয়েছে। আধুনিক ট্রমা সেন্টারটি প্রতিষ্ঠার ফলে দুর্ঘটনায় পতিত মানুষের জীবনহানী কমে যাবে।
ট্রমা সেন্টার এলাকার পৌর কাউন্সিলর প্যানেল মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ বলেছেন, তার নয় নম্বর ওয়ার্ডে প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে বিসিক শিল্পনগরী। এই এলাকায় বেড়ে যাবে জনকোলাহল। আসবে দেশি বিদেশি শিল্পদ্যোক্তা। এই ধরণের এলাকায় ট্রমা সেন্টার প্রতিষ্ঠা রাউজানের সমৃদ্ধিকে আরো এগিয়ে দেবে। রাউজানের সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী বলেছেন, রাউজান রাঙামাটি সড়ক পথে কুণ্ডেশ্ব্‌রী এলাকায় কারিগরি কলেজ নির্মাণ কাজ দ্রুতগতিতে সম্পন্ন করা হচ্ছে। কাপ্তাই সড়ক পথের চুয়েটকে ঘিরে গড়ে তোলা হচ্ছে আইটি পার্ক।
সম্প্রসারিত করা হবে চুয়েট পর্যন্ত রেল লাইন। এসব প্রতিষ্ঠানের সাথে সংশ্লিষ্টদের যাওয়া আসায় প্রতিটি সড়ক পথ ব্যস্ত হয়ে উঠবে। সবকিছু বিবেচনায় নিয়ে এখানে ট্রমা সেন্টার প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জোনায়েদ কবির সোহাগ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম,চেয়ারম্যান আবদুল জব্বার সোহেল, আওয়ামীলীগ নেতা জসিম উদ্দিন, কামাল উদ্দিন, শোয়েব-এ-খান প্রমুখ।

x