হতাশ নই, রেজাউল ভাইয়ের জন্য জীবনবাজি রেখে কাজ করব

চট্টগ্রাম ফিরে নাছির

আজাদী প্রতিবেদন

মঙ্গলবার , ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ at ৫:৪০ পূর্বাহ্ণ
832

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপ্রাপ্ত রেজাউল করিমকে জয়ী করতে যতটুকু সামর্থ্য আছে তার শতভাগ উজাড় করে দেবেন বলে জানিয়েছেন সিটি করপোরেশনের বর্তমান মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী যার হাতে নৌকা প্রতীক তুলে দিয়েছেন, তাকে বিজয়ী করার জন্য আমার যতটুকু সামর্থ্য আছে-তার শতভাগ উজাড় করে দেবো। জীবনবাজি রেখে চেষ্টা চালিয়ে যাবো। প্রধানমন্ত্রীকে সিটি মেয়র পদটি উপহার দেবো।
গতকাল সোমবার বিকেলে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম ফিরে নগরীর আন্দরকিল্লা নজির আহমদ চৌধুরী রোডে নিজ বাসভবনের সামনে সাংবাদিকদের কাছে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে এসব কথা বলেন মেয়র নাছির। আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডে সাক্ষাতকার দেওয়ার জন্য গত শনিবার তিনি ঢাকায় গিয়েছিলেন।
দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম চৌধুরীকে বিজয়ী করতে আন্তরিক চেষ্টা থাকবে জানিয়ে দলের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, ‘আমি যেহেতু দলের সেক্রেটারি, আমি প্রথমে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতির সঙ্গে বসব। এরপর নেতাদের সঙ্গেও বসব। আশা করি, নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেলে আর কোনো সমস্যা থাকবে না। আমি আগেও বলেছি, এখনও বলছি, প্রধানমন্ত্রী রেজাউল ভাইকে প্রার্থী করেছেন। রেজাউল ভাইকে জয়ী করে আনা আমাদের দায়িত্ব। অতীতেও দলের মনোনীত যেকোনো প্রার্থীকে বিজয়ী করার জন্য আমি যেভাবে জীবন বাজি রেখে কাজ করেছি, এবারও তার কোন ব্যতিক্রম হবেনা। প্রধানমন্ত্রী মনোনীত প্রার্থী রেজাউল ভাইকে জয়ী করে সিটি মেয়রের পদটি প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দেবো।
এরমধ্যে আমি রেজাউল করিম ভাইয়ের সাথে কথাও বলেছি। আজকেও আমার সাথে কথা হয়েছে। গতকালও আমরা কথা বলেছি। আগামী পরশুদিন তিনি চট্টগ্রামে আসবেন। তাকে রেলস্টেশন চত্বরে আমরা বরণ করে নেবো। এরপর নগর আওয়ামী লীগের নেতারা সবাই তার সঙ্গে বসে কীভাবে সিটি নির্বাচন পরিচালনা করা হবে তার কৌশল ঠিক করবো, পরিকল্পনা নেবো। এসময় তিনি বলেন, আমি আজীবন একটি পদে থাকবো না। প্রত্যেকেই ধারাবাহিকভাবে পদে আসবে। এটিই সাধারণ বিষয়। কেউ আসবেন, কেউ বিদায় নেবেন-এটিই স্বাভাবিক একটি প্রক্রিয়া।
আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাকে দলের সাধারণ সম্পাদক করেছেন। তিনবারের সফল মেয়র আমাদের শ্রদ্ধেয় নেতা এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীকে সরিয়ে তিনিই আমাকে মেয়র পদে মনোনয়ন দিয়েছেন। তখন মহিউদ্দিন ভাইয়ের পরিবর্তে আমাকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়েছিলো, এখন আমার পরিবর্তে আরেকজনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। এটাই স্বাভাবিক ঘটনা।
মনোনয়ন না পাওয়ায় হতাশ কি-না?- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, ‘আপনারা আমার চেহারা দেখেন। আমার মধ্যে কোনো হতাশা নেই। কর্মীদের মধ্যে কিছুটা ইমোশন হয়তো আছে। ইনশাল্লাহ সেটা কেটে যাবে। আমি আজকেই এসেছি ঢাকা থেকে। এখন আমি কর্মীদের সঙ্গে বসব। পর্যায়ক্রমে সবার সঙ্গে বসা হবে।’
মেয়র আ জ ম নাছির প্রথমে ট্রেনযোগে দুপুরে চট্টগ্রাম রেল স্টেশনে আসবেন শুনে অনেক নেতাকর্মী পুরাতন রেল স্টেশনে গিয়ে ভিড় করেন। কিন্ত তিনি ভিড় এড়াতে অনেকটা নীরবে ঢাকা থেকে বিমানে চট্টগ্রাম নেমে নিজ বাসভবনে চলে আসছেন-এমন খবর পেয়ে শত শত নেতাকর্মী আবার আন্দরকিল্লাস্থ বাসভবনের সামনে গিয়ে ভিড় করেন। এক সময় বাসভবনের সামনে নেতাকর্মীদের ঢল নামে। কর্মীদের ভিড় ঠেলে বাসার ভেতরে প্রবেশ করতে মেয়রেকে অনেক বেগ পেতে হয়। এসময় নেতাকর্মীদের তিনি শান্তনা দেন। আগের মতোই তাদের পাশে আছেন-এমন কথা জানান।