স্বপ্নে গুড়েবালি

মো. লোকমানুল আলম

রবিবার , ৩ নভেম্বর, ২০১৯ at ৬:০৯ পূর্বাহ্ণ
24

গত সোমবার ২০১৯-২০২০ শিক্ষা বর্ষের চবি ডি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে সে ভর্তি পরীক্ষা যে অসঙ্গতিপূর্ণভাবে হয়েছে তা সাধারণেরা জ্ঞাত হয়েছে প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া এবং সামাজিক যোগাযোগের সুবাদে । পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে যে ভুল বা অসঙ্গতি তা নিয়ে নভেম্বরের প্রথম দিন চবি প্রশাসনের একটা বক্তব্য ুগত ২৮ অক্টোবর ডি ইউনিটের পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে ন্যাশনাল কারিকুলাম (ইংরেজি ভার্সান) পরীক্ষার্থীদের বাংলা প্রশ্ন একেবারেই অনিচ্ছাকৃতভাবে ভুলবশত অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। ু আমার কৌতূহল কোটেশনভুক্ত বাক্যটা ছাপালেই কি চবি কর্তৃপক্ষ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত ও দূর-দূরান্ত থেকে অমানুষিক পরিশ্রম আর কল্পনাতীত হয়রানি এবং ঝক্কিঝামেলা সহ্য করে কৃষক শ্রমিকের ছেলেমেয়েরা যে ভর্তির আশায় ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিল এবং ঐ পরীক্ষা চবির সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞ (!) শিক্ষকদের কারণে পরীক্ষাটি বাতিল করা হয়েছে, কোটেশনভুক্ত বাক্যটি ছাপিয়ে কি চবি কর্তৃপক্ষ দায় এড়াতে পারে?
ঐ পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ৪১৬ জন পরীক্ষার্থীর পরীক্ষার প্রস্তুতি গ্রহণ হতে শুরু করে পরীক্ষায় অংশগ্রহণে যে ধকল সইতে হয়েছে এবং গরীব বাবা মাদেরকে যে অর্থের যোগান দিতে হয়েছে তা কি পত্রিকায় প্রথমদিন না ছাপানো বাক্যটা দিয়ে পরীক্ষার্থী এবং বাবা মা দের সন্তুষ্ট করা যাবে? সমপ্রতি দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বিরাজমান অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাসমূহ যখন আপামর জনসাধারণকে ভাবিয়ে তুলেছে তখন ঐতিহ্যবাহী চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে আরেকটু সচেতন ও সতর্কতা অবলম্বন করা কি উচিত ছিল না? চবি কর্তৃপক্ষ গত সোমবার অসঙ্গতিপূর্ণ প্রশ্নের মাধ্যমে ডি ইউনিটের যে ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন করেছে তা আগামী ৬ নভেম্বর পুনরায় অনুষ্ঠানের বা গ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করেছে। যে সমস্ত পরীক্ষার্থী খুব কষ্ট করে অর্থ যোগাড় করে চবিতে ঐ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করতে এসেছিলেন এবং পরীক্ষাশেষে বাড়ি ফিরে গেছেন অথবা অন্যকোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য তথায় গমন করেছেন, অথবা অর্থের যোগান না পাওয়ায় ৬ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করতে আর পারবেন না, তাদের কি হবে? উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের স্বপ্ন নিয়ে বিভোর ছিল যে মেধাবী শিক্ষার্থীরা এবং যে মা-বাবারা তাদের সন্তানদের নিয়ে আকাশ সমান স্বপ্ন দেখেছিলেন, দেখেছিলেন তাদের পরিবারের অভাব অনটন ঘুচানোর স্বপ্ন, সেই স্বপ্নে গুড়েবালি নয় কি!

x