সুজুকির হ্যাটট্রিকে চেন্নাইকে উড়িয়ে দিল তেরেঙ্গানু এফসি

ক্রীড়া প্রতিবেদক

বুধবার , ২৩ অক্টোবর, ২০১৯ at ১২:৫৬ অপরাহ্ণ
15

শেখ কামাল ক্লাব কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের তৃতীয় ম্যাচে এসেই গোল বন্যা দেখল দর্শকরা। হ্যাটট্রিক সহ চার গোল করে টুর্নামেন্টকে স্মরণীয় করে রাখলেন মালয়েশিয়ার ক্লাব তেরেঙ্গানু এফসির স্ট্রাইকার ব্রনো সুজুকি। এবারের টুর্নামেন্টে ভারতের আই লিগ চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই এফসিকে ধরা হয়েছিল সবচাইতে ফেবারিট হিসেবে। কিন্তু আগের ম্যাচে ফেবারিটের তকমা নিয়ে আসা মোহনবাগানকে হারিয়ে চমকে দিয়েছিল লাওসের ক্লাব ইয়ং এলিফ্যান্টস এফসি। আর গতকাল আরো একটি মহা আপসেট ঘটিয়ে দিল মালয়েশিয়ার ক্লাব তেরেঙ্গানু এফসি। ভারতের সেরা দল চেন্নাই এফসিকে গোল বন্যায় ভাসিয়ে টুর্নামেন্ট শুরুর করল মালয়েশিয়ার ক্লাবটি। চেন্নাই এফসিকে ৫-৩ গোলে হারিয়ে দুর্দান্ত চমক দেখাল তেরেঙ্গানু এফসি। দলটির ব্রাজিলীয়ান ফুটবলার ব্রুনো সুজুকি একাই ধসিয়ে দিল চেন্নাইকে। নিজেদের দুর্গ সামলে কিভাবে প্রতিপক্ষকে নাস্তানাবুদ করতে হয় সেটা যেন দেখাল তেরেঙ্গানুর ফুটবলাররা। গোল বন্যার এই ম্যাচে শুরু থেকেই ছিল দুর্দান্ত এক ম্যাচের আভাস। শেষ পর্যন্ত সে প্রতিদ্বন্দ্বিতার বারুদ ছড়িয়ে শেষ হলো ম্যাচটি। ৯০ মিনিটের এই বারুদ লড়াইয়ে সুযোগ কিভাবে কাজে লাগাতে হয় সেটা দেখিয়ে দিয়েছে মালয়েশিয়ার ক্লাবটি। সুযোগের সঠিক ব্যবহার করে ভারতের সেরা ক্লাবটিকে এক রকম উড়িয়েই দিল মালয়েশিয়ার তেরেঙ্গানু এফসি। এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে টুর্নামেন্টের প্রথম হ্যাটট্রিক করার গৌরব অর্জন করল থেরেঙ্গানো এফসির ব্রুনো সুজুকি। তারই করা চার গোলে একেবারে খড়খুটোর মত উড়ে গেল ভারতের সেরা ক্লাব চেন্নাই সিটি এফসি।
ম্যাচের শুরু থেকেই চলে আক্রমণ আর পাল্টা আক্রমণ। আর সে আক্রমণের ধারা শুরু করেছিল চেন্নাই সিটি এফসি। কিন্তু শুরুতেই গোলাটাও হজম করে ফেলে তারা। খেলার কেবল ৪ মিনিট তখন। বামপ্রান্ত দিয়ে আক্রমণে উঠে তেরেঙ্গানু এফসি। ব্রুনো সুজুকি দারুণ এক মাইনাস করেন। আর তাতে প্লেসিং শটে গোল করতে ভুল করেননি রহমত বিন মাকাসুফ। এরপর চলে আক্রমণ আর পাল্টা আক্রমণ। ২৩ মিনিটে সমতা ফেরান চেন্নাই। নিজেদের ডিবঙে তেরেঙ্গানুর গোলরক্ষক এবং এক ডিফেন্ডার নিজেদের মধ্যে বল দেওয়া নেওয়া করছিলেন। সে সুযোগে ডিফেন্ডারের কাছ থেকে বল কেড়ে নেন কাটসুমি ইউসা। কিপারের মাথার উপর দিলে বল জালে পাঠিয়ে সমতা ফেরান এই জাপানী ফুটবলার। এরপর দু দলই করে আক্রমণ আর পাল্টা আক্রমণ। ৩৩ মিনিটে এগিয়ে যায় চেন্নাই সিটি এফসি। বামপ্রান্ত দিয়ে আক্রমণে উঠে শট নিয়েছিলেন চেন্নাইয়ের এক ফুটবলার। কিন্তু বল ধরার চেষ্টা করে তেরেঙ্গানুর গোল রক্ষক। ব্যর্থ হন সে যাত্রায়। বল কেড়ে নেন থাংগালা। সে সাথে বল পাঠিয়ে দেন জালে। এগিয়ে যায় চেন্নাই সিটি এফসি। এবার সমতা ফেরাতে মোটেও সময় নেয়নি মালয়েশিয়ার ক্লাবটি। ডানপ্রান্ত দিয়ে আক্রমণে উঠে ডিবক্সে সৃষ্ট জটলায় শট নেননি রহমত। বল ঠেলে দেন ব্রুনো জুনিসির উদ্দেশ্যে। মািটতে লুটিয়ে পড়ে দারুন এক হেডে বল জালে পাঠিয়ে দেন ব্রুনো। ২-২ গোলে সমতা ফেরে খেলায়। সমতায় প্রথমার্ধ শেষ হচ্ছে তেমনটি যখন ধরে নিয়েছিল সবাই ঠিক তখনই খেলার প্রথমার্ধের একেবারে শেষ মিনিটে সেই ব্রুনো জুনিসি আবার গোল করে এগিয়ে দেন তেরেঙ্গানু এফসিকে। এবার আক্রমণের উৎস বামপ্রান্ত। লি টাক এর বাড়ানো বল ধরে অনেক দূর থেকে আগোয়ান গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে বল পাঠিয়ে দেন জালে। আর সে সাথে ৩-২ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় তেরেঙ্গানু এফসি।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেও আক্রমণ এবং পাল্টা আক্রমণে চলতে থাকে খেলা। চেন্নাই সিটি এফসি সমতা ফেরাতে পারতো এ অর্ধের প্রথম মিনিটেই। সতীর্থের কাছে থেকে বল পেয়ে বল পেয়ে এডালফো মিরান্ডা যে শট নিয়েছিলেন তা রুখে দেন তেরেঙ্গানুর গোলরক্ষক। ২১ মিনিটে আরো একবার সুযোগ এসেছিল ভারতের ক্লাবটির সামনে সমতা ফেরানোর। এবার পেড্রোর শট নিজের গ্রিপে নিয়ে নেন তেরেঙ্গানুর গোলরক্ষক। পাল্টা আক্রমণে ব্যাবধান বাড়ানোর সুযোগ এসেছিল মালয়েশিয়ার ক্লাবটির। কিন্তু চলন্ত বলে ছাকমোদোভ যে শট নিয়েছিলেন তা কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন চেন্নাই গোল রক্ষক। ২৭ মিনিটে এবার গোল আদায় করে নেয় তেরেঙ্গানু এফসি। চেন্নাই এফসির ডিবক্সের সামনে বল পেয়ে একক প্রচেষ্টায় দুর্দান্ত এক ভলীতে বল জালে পাঠিয়ে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন তেরেঙ্গানু এফসির ব্রাজিলের বংশোদ্ভুত জাপানী ফুটবলার ব্রুনো সুজুকি। ৪-২ গোলে এগিয়ে যায় মালয়েশিয়ার ক্লাবটি। ৩৭ মিনিটে বলতে গেলে চেন্নাই এফসির কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন সেই ব্রুনো সুজুকি। এবার ডান প্রান্ত থেকে বদলী নুর শাকিরের বাড়ানো বল ধরে সেই ব্রুনো সুজুকি প্লেসিং শটে বল জালে পাঠিয়ে ৫-২ গোলে এগিয়ে দেন তার দল থেরেঙ্গা এফসিকে। ৪৩ মিনিটে ব্যবধান কমায় চেন্নাই এফসি। এবার পেনাল্টি লাভ করে চেন্নাই এফসি। আর সে পেনাল্টি থেকে পেড্রো গোল করলে ৫-৩ গোলের পরাজয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরুর করতে হয় ভারতের আই লিগ চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই এফসিকে। অপরদিকে দুর্দান্ত জয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করল মালয়েশিয়ার ক্লাব তেরেঙ্গানু এফসি। হ্যাটট্রিক সহ চার গোল করা ব্রুনো সুজুকি নির্বাচিত হন ম্যাচ সেরা। তার হাতে পুরস্কার তুলে দেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সহ সভাপতি ও চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি আলহাজ্ব আলী আব্বাস।

x