সীতাকুন্ডের ত্রিপুরা উপজাতিদের দেখার কেউ কি নেই?

রবিবার , ২৭ মে, ২০১৮ at ৩:৪১ পূর্বাহ্ণ
55

আমরা অনেক বছর থেকে শুনে আসছি, বিভিন্ন পত্রিকায়ও পড়ছি সীতাকুন্ডের উপজাতিদের বিশেষ করে ত্রিপুরাদের উপর দুর্বৃত্তদের আক্রমণ তাদের হত্যা, তাদের কিশোরি/যুবতি মেয়েদের ধর্ষণের ঘটনা অহরহ ঘটছে। আমাদের প্রশ্ন সেখানে স্থানীয় প্রশাসন কী করছে? কেন বারবার ওদের উপর অত্যাচার হচ্ছে? ওরা নিরীহ বলে? ওরা অসহায় বলে? ওরা উপজাতি বলে? এই তো গত ১৯ মে’ ১৮ পত্রিকায় (দৈনিক আজাদী প্রকাশ ‘সীতাকুন্ডের ত্রিপুরা, পাড়ায় নিজ বসতঘরে ফাঁসিতে ঝুলানো অবস্থায় দুই ত্রিপুরা কিশোরীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।’ খবরে আরও প্রকাশ (২০ মে, ১৮ দৈনিক আজাদী) আবুল হোসেন নামক এক দুর্বৃত্ত তার কয়েকজন সহযোগীকে নিয়ে ঐ অসহায় ১৫ বছর ও ১৪ বছরের দু’টো মেয়েকে হত্যা করে।

সীতাকুন্ডের এ আদিবাসীরা বড়ই নিরীহ। ওরা দিন মজুরি করে সংসার চালায়। তারা গরীব ও অসহায়। এ অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে স্থানীয় বখাটেরা যা ইচ্ছা তাই করে। প্রতিবাদ করলে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এখন প্রশ্ন এদের দেখার কেউ কি নেই? এদের বঞ্চনাময় জীবনের কি শেষ হবে না?

তাই প্রশাসনের কাছে অনুরোধ এদের নিরাপত্তা দিন। ভবিষ্যতে আর যেন এ রকম ঘটনা না ঘটে। দুষ্কৃতকারীদের গ্রেফতার পূর্বক উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করুন।

রণধীর মল্লিক, শিক্ষক।

x