সীতাকুণ্ড সমিতির যুগপূর্তি উৎসব

শনিবার , ১৬ নভেম্বর, ২০১৯ at ৯:৩২ পূর্বাহ্ণ
25

বর্ণাঢ্য আয়োজনে পালিত হলো সীতাকুণ্ড সমিতি-চট্টগ্রামের যুগপূর্তি। এ উপলক্ষে দুই শতাধিক কৃতী শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবক, বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখায় সীতাকুণ্ড সমিতি সম্মাননা পদকপ্রাপ্ত ২২ বিশিষ্ট ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান এবং সীতাকুণ্ডবাসীর অংশগ্রহণে মুখর হয়ে ওঠে নগরীর কিং অব চিটাগং ক্লাব। অনুষ্ঠানে যুগপূর্তির কেক কাটেন অতিথি ও সীতাকুণ্ড সমিতির নেতারা।
গত বৃহস্পতিবার সমিতির উপদেষ্টা ও ফেনী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর ড. ফসিউল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সীতাকুণ্ডের কৃতি সন্তান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক। বিশেষ অতিথি ছিলেন, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব শামীম সোহেল, চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর শাহেদা ইসলাম, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, মিডল্যান্ড ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান মাস্টার আবুল কাশেম।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. গোলাম ফারুক বলেন, প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে বৈশ্বিক অগ্রসরমাণ জ্ঞান অর্জনের কোনো বিকল্প নেই। ভালো ফলাফলের জন্য সংবর্ধিত শিক্ষার্থীদের তিনি সাধুবাদ জানান।
অনুষ্ঠানে সংবর্ধিতদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রফেসর ড. মাহমুদুল হক, জাহাঙ্গীর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণী বিদ্যা বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর ড. সাজেদা বেগম নাতাশা, ট্যুরিস্ট পুলিশ চট্টগ্রাম বিভাগের এডিশনাল ডিআইজি মুহাম্মদ মুসলিম, সীতাকুণ্ড কলেজের সাবেক অধ্যাপক সুনিল বন্ধু নাথ, ডা. খাস্তগীর সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা সৈয়দা সুরাইয়া আখতার, অবসরপ্রাপ্ত মেজর মো. শামসুল আমিন, ডা. রোকেয়া বেগম, উন্নয়ন সংগঠন ইপসার প্রধান আরিফুর রহমান, মরণোত্তর পদকপ্রাপ্ত ড. রশীদ আল ফারুকীর পুত্র ব্যাংকার আহমেদ খসরু প্রমুখ।
সংগঠনের যুুুুগ্ম সম্পাদক আবেদীন আল মামুন ও আলীম উল্যাহ মুরাদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, রাজনীতিবিদ নূরুল মোস্তফা কামাল চৌধুরী, সংগঠনের সাবেক সভাপতি ও যুগপূর্তি উৎসব উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক লায়ন মো. গিয়াস উদ্দিন, সভাপতি অধ্যাপক আবুল মনসুর ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন মানিক, সাবেক সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক একেএম তফজল হক, প্রতিষ্ঠাতা যুগ্ম আহ্বায়ক দিদারুল ইসলাম মাহমুদ চৌধুরী, চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবানে ভুরিভোজ ও চট্টগ্রামের জনপ্রিয় শিল্পীদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে যুগপূর্তি উৎসব শেষ হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x