সীতাকুণ্ডে শিল্প কারখানায় স্থানীয়দের কোটা রাখতে হবে

মতবিনিময় সভায় বক্তারা

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি

বুধবার , ২৩ অক্টোবর, ২০১৯ at ১১:০৩ পূর্বাহ্ণ
13

সীতাকুণ্ডে স্বনামধন্য ১০টি গ্রুপ অব কোম্পানীসহ ছোট বড় ৫০টি মিল কারখানা রয়েছে। এইসব মিল কারখানায় চাকুরীতে স্থানীয় লোকদের উপস্থিতি খুবই কম বলে সীতাকুণ্ডে বেকার সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করছে। তাই মিল কারখানাগুলির চাকুরীতে স্থানীয়দের নিয়োগে কোটা বহাল রাখতে হবে। কত শতাংশ স্থানীয় শ্রমিক নিতে হবে তা একটি নীতিমালার আওতায় আনতে হবে। গত রবিবার সীতাকুণ্ডের পেশাজীবী, রাজনৈতিক, সামাজিক ও মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে ‘আমার সীতাকুণ্ড আমার ভাবনা’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় বিভিন্ন বক্তা কথাগুলো বলেন।
সীতাকুণ্ড পৌরসভার হলরুমে দি হাঙ্গার প্রজেক্টের পেইভ প্রোগ্রামের পিস প্রেসার গ্রুপ পিপিজি, সীতাকুণ্ড কর্তৃক আয়োজিত মতবিনিময়ে সভাপতিত্ব করেন সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) সীতাকুণ্ড উপজেলা শাখার সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম ওয়াহিদী। সমন্বয়কারী মো. নাছির উদ্দিন অনিকের সঞ্চালনায় সভায় ধারণা পত্র পাঠ করেন সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক লিটন কুমার চৌধুুরী। বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ ইসহাক, উপজেলা বিএনপি যুগ্ম আহবায়ক জহুরুল আলম, মুক্তিযোদ্ধা মানিক বড়ুয়া, মুক্তিযোদ্ধা মহরম আলী, মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাসেম, পৌর কাউন্সিলর সামসুদ্দিন আজাদ, মা্‌ইমুনউদ্দিন মামুন, দিদারুল আলম এ্যাপোলো, বর্ণালী ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এ.কে.এম মছিউদৌলা, প্রেসক্লাব সহ-সভাপতি জহিরুল ইসলাম, সাংবাদিক জাহেদুল আনোয়ার চৌধুরী, সাংবাদিক আবুল খায়ের, এমওএইচ কাইয়ুম, মেঘমল্লার খেলাঘর আসরের সভাপতি তপন মজুমদার, সাধারণ সম্পাদক সুজিত দাশ, সংগঠক জাহেদুল ইসলাম বিটু, প্রোগ্রাম সমন্বয়কারী মাইমুনা আক্তার রুবী, আঞ্চলিক সমন্বয়কারী মাইনুল ইসলাম, রিপন প্রমুখ। বক্তারা আরো বলেন, আমাদের ১০০টির অধিক শীপ ব্রেকিং ইয়ার্ড থেকে হাজার কোটি টাকার অধিক রাজস্ব পায় সরকার। অন্যদিকে সীতাকুণ্ড প্রকৃতি প্রদত্ত সৌন্দর্যের লীলাভূমি। এখানে রয়েছে, চন্দ্রনাথ পাহাড়, ইকোপার্ক ও বোটানিক্যাল গার্ডেন, ভাটিয়ারী ও ফৌজদারহাট লিংক রোড, সমুদ্র উপকূলে সী বীচসহ অসংখ্য পর্যটন স্পট। তাই অপার সম্ভাবনাময় পর্যটন নগরী হিসেবে সীতাকুণ্ডকে গড়ে তুললে হাজার হাজার লোকের কর্মসংস্থান হবে। এজন্য সরকারের সু-দৃষ্টি কামনা অতি জরুরি।

x