সীতাকুণ্ডে এসআইয়ের বিরুদ্ধে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি

বুধবার , ২৫ মার্চ, ২০২০ at ১২:০২ অপরাহ্ণ
7

সীতাকুণ্ড বারআউলিয়া হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মিজানের বিরুদ্ধে এক ব্যক্তিকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকালে সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন সীতাকুণ্ড সাব রেজিস্ট্রার অফিসের নিবন্ধনকৃত দলিল লেখক মো. নাজমুল হাসান হেলাল।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত ২২ মার্চ বিকাল ৩টায় মোটর সাইকেলযোগে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক হয়ে কুমিরা ইউনিয়নে যাচ্ছিলাম। দুর্ঘটনাবশত আমার পেছনে বসা সহকারীর হেলমেট ছিল না। পথিমধ্যে জ্বালানি সংগ্রহের জন্য পেট্রোল পাম্পে গেলে ইউটার্ন অভিমুখে এসআই মিজান আমার কাগজপত্র দেখতে চান ও পেছনের লোকের হেলমেট না থাকার কারণ জিজ্ঞেস করেন। আমি বিনীতভাবে আমার কাগজপত্র দেখাই।
এ সময় পরিদর্শনে আসা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ কাগজপত্র দেখে আমাকে আরেকটি হেলমেট এনে গাড়ি ছেড়ে দেওয়ার জন্য বলেন। কিন্তু ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষ চলে গেলে এসআই মিজান আমার কাছে টাকা দাবি করেন। তার সাথে কথা বলতে চাইলে তিনি আমার মুখে সজোরে চড় মারেন। এতে আমি অজ্ঞান হয়ে পড়ি। এ সময় স্থানীয় জনতা ক্ষিপ্ত হলে তিনি দ্রুত আমার সহকারীকে চাবি ও গাড়ি বুঝিয়ে দিয়ে সরে পড়েন।
নাজমুল হাসান হেলাল আরো বলেন, এ ধরনের পুলিশের জন্য প্রতিনিয়ত সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন হচ্ছে। তিনি নিরাপদ সড়কের দাবিতে ও পরিবহন সেক্টরে নৈরাজ্য রুখতে এসআই মিজানের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।
এদিকে এ ব্যাপারে জানতে এসআই মিজানের ফোনে কল করলে চড় মারার বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেন।