সিপিডিএলের গ্রাহক সেবা এখন অ্যাপে

আজাদী প্রতিবেদন

শনিবার , ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ at ৬:১৫ পূর্বাহ্ণ

দেশে প্রথমবার আবাসন খাতে মোবাইল অ্যাপস ভিত্তিক গ্রাহক সেবা চালু করেছে সিপিডিএল। ফলে এখন থেকে সিপিডিএল পরিবারের সকল গ্রাহক সদস্য সেবা পাবেন ‘সিপিডিএল কেয়ার অ্যাপ’ শিরোনামের মোবাইল এপ্লিকেশনের মাধ্যমে।
গতকাল বিকেলে নগরীর দেবপাহাড়স্থ সিপিডিএল’র বাস্তবায়নাধীন চট্টগ্রামের প্রথম গ্রিন গেইটেড কমিউনিটি ‘সিপিডিএল সুলতানা গার্ডেনিয়া’ প্রকল্প এলাকায় বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে অ্যাপস’টির উদ্বোধন করা হয়। এর আগে প্রথম অধিবেশনে ‘সিপিডিএল স্মার্ট লিভিং’ এরও উদ্বোধন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জহিরুল আলম দোভাষ। উপস্থিত ছিলেন ‘সিপিডিএল সুলতানা গার্ডেনিয়া’ প্রকল্পের ভূমি মালিক ব্যারিস্টার কামাল উল আলম, সিপিডিএল চেয়ারম্যান আবুল হোসেন চৌধুরী, সিপিডিএল এর এমডি ও সিইও ইঞ্জিনিয়ার ইফতেখার হোসেন, দৈনিক আজাদীর পরিচালনা সম্পাদক ওয়াহিদ মালেক, চকবাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইয়েদ গোলাম হায়দার চৌধুরী মিন্টু, ইক্যুইটি প্রপার্টিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান ডা. মঈনুল ইসলাম, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের প্রধান নগরপরিকল্পনাবিদ শাহীনুল ইসলাম খান।
অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সিপিডিএল’র ‘স্মার্ট প্রপাটি ম্যানেজমেন্ট’ ক্যাম্পেইনের আওতায় মোবাইল অ্যাপস ভিত্তিক সেবাটি চালু করা হয়েছে। ‘এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ইউজাররা গুগল প্লে স্টোর থেকে ঈচউখ ঈধৎব অঢ়ঢ় লিখে সার্চ দিয়ে অ্যাপটি ফ্রি ডাউনলোড করতে পারবেন। অন্য অপারেটিং সিস্টেম এর ইউজাররা সরাসরি ওয়েব ভার্সনটি ইউজ করতে পারবেন যে কোন ডিভাইস থেকে- যঃঃঢ়://পধৎব.যধঢ়ঢ়ুপঢ়ফষ.পড়স এই লিংকে গিয়ে।
সিপিডিএল এর এমডি ও সিইও ইঞ্জিনিয়ার ইফতেখার হোসেন বলেন, ‘সিপিডিএল এর সকল গ্রাহক সদস্য ‘সিপিডিএল কেয়ার অ্যাপস’টি ব্যবহার করে ঘরে বসেই যে কোন মুহূর্তে নানা সেবার সুযোগ পাবেন। সিপিডিএল ফ্যামিলি’র চলমান প্রকল্পের গ্রাহক সদস্যগণ সংশ্লিষ্ট ফ্ল্যাট সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য ও সেবা পাবেন। যেমন- প্রকল্পের নির্মাণ কাজের হালনাগাদ অবস্থা, পেমেন্ট শিডিউল, চলতি হিসেব, পরবর্তী পেমেন্টের তারিখ ইত্যাদি অনায়াসেই জানতে পারবেন অ্যাপস’টির মাধ্যমে। তিনি বলেন, সিপিডিএল ফ্যামিলির হস্তান্তরিত প্রকল্পসমূহের গ্রাহক সদস্য এবং ল্যান্ড ওনারগণ সংশ্লিষ্ট ফ্ল্যাট সংক্রান্ত যে কোন বিষয়ে রিকোয়েস্ট করতে পারবেন। ফিচারটির মাধ্যমে ছবি ও বিস্তারিত বর্ণনা সহকারে ফ্ল্যাট এর স্যানিটারি, ইলেক্ট্রিক, পেইনটিং ইত্যাদি বিষয়ে সার্ভিস রিকোয়েস্ট করা যাবে। রিকোয়েস্ট’গুলোর নিয়মিত আপডেট পাওয়া যাবে অ্যাপেই।’
ইঞ্জিনিয়ার ইফতেখার হোসেন আরো বলেন, আমরা এমন কিছু করতে চাই যাতে আমরা হ্যাপি হব এবং আমাদের গ্রাহকরাও হ্যাপি হবেন। হয়তো গ্রাহকদের শতভাগ হ্যাপি করতে পারবো না, কিন্তু হ্যাপি করার জন্য শতভাগ চেষ্টা করে যেতে পারি। তিনি বলেন, আমাদের উদ্দেশ্য কেবল ফ্ল্যাটের স্কয়ার ফিট বিক্রি করা না। আমাদের উদ্দেশ্য একটা লাইফ স্টাইল দেয়া এবং একটা সোসাইটি ক্রিয়েট করা। সেজন্য আমরা ‘র্স্মাট লিভিং’কে তুলে এনেছি। আমাদের ‘সিপিডিএল সুলতানা গার্ডেনিয়া’ প্রকল্পে ৪০টি ফ্যাসিলিটি থাকবে। চারটি টাওয়ারের মাঝখানের অংশে থাকবে গ্রিন স্পেস। থাকবে বাগান, ওয়াকওয়ে, লাইব্রেরি, শিশুদের বিনোদন কেন্দ্র, খেলাধুলার নানা আয়োজন। শিশুদের পাশাপাশি বয়োবৃদ্ধসহ সব বয়সীদের বিনোদনের জন্যও স্পেস রাখা হবে প্রকল্পটিতে। চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জহিরুল আলম দোভাষ ‘সিপিডিএল সুলতানা গার্ডেনিয়া’ প্রকল্পের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, আশা করছি সিপিডিএল’র প্রকল্প চট্টগ্রামে দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করবে। ভবিষ্যতের জন্যও এটা উদাহারণ হয়ে থাকবে, পাহাড় না কেটেই ভবন তৈরি করা হচ্ছে। ভবনের সামনে স্পেস রাখা হচ্ছে। এ ধরনের স্পেস রাখার দৃষ্টান্ত খুব কমই আছে।

x