সিটি মেয়র সমীপে

বৃহস্পতিবার , ১৪ নভেম্বর, ২০১৯ at ৩:১৩ পূর্বাহ্ণ
28

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) পরিচালিত স্কুলের দশম শ্রেণীর টেস্ট (নির্বাচনী) পরীক্ষায় যারা দশটির মধ্যে এক বিষয়ে ফেল করেছে, তাদেরকে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষার ফরম পূরণের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না বলে জানা যায়। এই নিয়ে শিক্ষার্থীর পাশাপাশি তাদের অভিভাবকদের মাঝেও দেখা দিয়েছে চরম হতাশা ও দুঃশ্চিন্তা। তাদের মতে দীর্ঘ ১০ বছর পর অনুষ্ঠিতব্য স্কুল পর্যায়ের এই চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার অনেক আশা ভরসা থাকে। কিন্তু অপ্রিয় হলেও সত্য যে নিছক টেস্ট পরীক্ষায় সবকটি বিষয়ে পাশ না করার কারণ দেখিয়ে একজন শিক্ষার্থীকে শেষ পর্যন্ত এ পরীক্ষা হতে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত শুধু দুঃখজনক নয়, অমানবিকও বটে। কারণ টেস্ট পরীক্ষার ফলাফলের দ্বারা একজন শিক্ষার্থীকে প্রকৃতপক্ষে মূল্যায়ন বা তার মেধা যাচাই করা সম্ভব নয় এবং ইহাকে তার যোগ্যতার মাপকাঠি হিসেবে বিবেচনার অবকাশ আছে বলেও মনে করি না বিধায় এক বা দুই বিষয়ে ফেল করা শিক্ষার্থীকে বিশেষ বিবেচনায় কিংবা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পুনঃপরীক্ষা নিয়ে অন্তত এস.এস.সি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার ন্যূনতম সুযোগ করে দেওয়া দরকার। এতে অভিভাবকেরা আর্থিকভাবে শুধু লাভবান হবে না শিক্ষার্থীরাও দ্বিগুণ উৎসাহে লেখাপড়ায় মনোনিবেশ করবে। উল্লেখ্য, আগে মূল মেট্রিক (এস.এস.সি) পরীক্ষায় এক বিষয়ে ফেল করিলে তাকে রেফার্ড পরীক্ষার সুযোগ দেওয়া হত। অতএব, মাননীয় চসিক মেয়র মহোদয় এ বিষয়টি মানবিক দৃষ্টিতে বিবেচনা করবেন এমনটাই প্রত্যাশা করছি।
বজল আহমদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক, ২২নং এনায়েত বাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ

x