সিকদার আমিনুল হক : শুদ্ধচারী নান্দনিক কবি

শুক্রবার , ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ at ৬:০১ পূর্বাহ্ণ

সষাটের দশকের অন্যতম ব্যতিক্রমী কবি সিকদার আমিনুল হক। তাঁর কবিতার মূল প্রতিপাদ্য দেশাত্মবোধ, নিঃসঙ্গতা, মৃত্যুচেতনা, নির্জনতা আর বিষাদ। ব্যক্তিজীবনের দৈনন্দিন ঘটনাপ্রবাহ, প্রেম ও নান্দনিকতাও তাঁর কবিতার আধেয়। আজ কবির ৭৭তম জন্মবার্ষিকী।
সিকদার আমিনুল হকের জন্ম ১৯৪২ সালের ৬ ডিসেম্বর ভারতের নদীয়ার কাঁচড়াপাড়ায়। স্নাতক পাস করে সম্পূর্ণভাবে সাহিত্য সাধনায় নিমগ্ন হন তিনি। ‘স্বাক্ষর’ লিটল ম্যাগাজিনের মধ্য দিয়ে সাহিত্য জগতে তাঁর পথচলার শুরু। লিখেছেন প্রচুর কবিতা। তাঁকে সমকাল ও স্বদেশ চেতনার কবি বলা চলে। কোনো কোনো কবিতায় পরিচয় মেলে রাজনীতি ও সমাজ সচেতনতার। সেই সাথে ফুটে ওঠে রোমান্টিক ভাবনা ও মানবমুক্তির চিরায়ত সনদ। তাঁর উল্লেখযোগ্য কবিতার বই ‘দূরের কার্নিশ’, ‘তিন পাঁপড়ির ফুল’, ‘পারাবত’, ‘এই প্রাচীরের শেষ কবিতা’, ‘আমি সেই ইলেকট্রা’, ‘সতত ডানার মানুষ’, ‘এক রাত্রি এক ঋতু’, ‘কাফকার জন্ম’ ইত্যাদি। তাঁর অধিকাংশ কবিতায়ই নতুনত্বের চমক রয়েছে। আধুনিক, শুদ্ধচারী, নান্দনিক কবি তিনি। ২০০৩ সালের ১৭ মে প্রয়াত হন কবি সিকদার আমিনুল হক।

x