সাগরের পরিবর্তে আরশাদ, জামিনের বদলে কারাবাস

আজাদী প্রতিবেদন

বুধবার , ২১ আগস্ট, ২০১৯ at ৬:১০ পূর্বাহ্ণ
818

আদালতে ‘সাগরের’ পরিবর্তে ‘আরশাদ’ হাজির হয়ে জামিন নিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু বিচারককে ফাঁকি দিতে পারলেন না আরশাদ। ধরা পড়ে কারাগারে যেতে হয়েছে তাকে। এ নিয়ে আদালতে মামলাও হয়েছে তার বিরুদ্ধে। গতকাল মঙ্গলবার মহানগর হাকিম শফি উদ্দিনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। তিনি ৪র্থ মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক (চার্জে) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন ওই সময়। এ ঘটনায় শোকজ করা হয়েছে নকল আসামির পক্ষে জামিনের দরখাস্ত দেওয়া আইনজীবী রেহেনা আক্তারকে। আদালতের সামনে ধরা নকল আসামি হচ্ছেন ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল থানার চর শ্রিরামপুর এলাকার হাশিম উদ্দিনের ছেলে আরশাদ মিয়া। ওই মামলার মূল আসামি ঢাকার গুলশান আবাসিক এলাকার এ আর চৌধুরী সাগর। আরশাদ মিয়া আদালতে বিচারাধীন একটি সিআর মামলার মূল আসামি এ আর সাগর চৌধুরী সেজে আত্মসমর্পণ করে জামিন চাইতে এসেছিলেন বলে জানান মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ৪র্থ আদালতের বেঞ্চ সহকারী মোহাম্মদ ওসমান গনি।
এ ঘটনায় নকল আসামির পক্ষে জামিনের দরখাস্ত দেওয়া আইনজীবীকে শোকজ করেছেন আদালত। ওই আইনজীবীকে আগামী সাত দিনের মধ্যে শোকজের জবাব দেওয়ার জন্য আদালতের নির্দেশনার কথাও জানিয়েছেন ওসমান গনি।
আদালত থেকে প্রাপ্ত তথ্যমতে, মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ৪র্থ আদালতে বিচারাধীন একটি সিআর মামলার আসামি এ আর সাগর চৌধুরী আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন চার্জে থাকা বিচারক শফি উদ্দিনের সামনে। এ সময় বিচারকের সন্দেহ হলে তাকে চ্যালেঞ্জ করা হয়। আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে স্বীকার করেন, তিনি এ আর সাগর চৌধুরী নন। তিনি আরশাদ মিয়া। টাকার বিনিময়ে সাগর চৌধুরী সেজে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেছেন। পরে এ ঘটনায় আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন ওসমান গনি। এ মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়।
এ বিষয়ে চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের নাজির আবুল কালাম আজাদ বলেন, আদালতে একজনের পরিবর্তে আরেকজন আসামি সেজে আত্মসমর্পণ করে জামিন চাইতে গিয়ে বিচারকের সামনে ধরা পড়েছেন আরশাদ মিয়া নামে এক যুবক। এ ঘটনায় আরশাদ মিয়ার নামে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন আদালতের বেঞ্চ সহকারী মোহাম্মদ ওসমান গনি।
এদিকে মহানগর হাকিম আদালতে দায়িত্ব পালনকারী এপিপি অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ওসমান উদ্দিন জানান, এ ধরনের ঘটনা সাম্প্রতিক সময়ে বেড়ে গেছে। কয়েক মাস আগেও এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে মহানগর হাকিম আদালতে। বিচারকগণ সতর্ক থাকায় ধরা পড়ছে নকল আসামিরা।

x