সবাইকে নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই : গভর্নর

লায়ন্স ক্লাব চিটাগাংয়ের দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠান

আজাদী প্রতিবেদন

শনিবার , ২০ জুলাই, ২০১৯ at ৭:২৭ পূর্বাহ্ণ
65

লায়ন্স ক্লাবস ইন্টারন্যাশনাল ডিস্ট্রিক্ট ৩১৫বি৪ এর গভর্নর লায়ন কামরুন মালেক বলেছেন, আজীবন দুস্থ মানুষের সেবা করাই আমার একমাত্র কামনা এবং বাসনা। সমাজের দুস্থ মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে চাই। এ পথচলায় আমি সকল লায়নকে পাশে চাই। সবাইকে সাথে নিয়ে চিত্ত, বিত্ত এবং মেধা দিয়ে গরিবদের জন্য কাজ করে যেতে চাই। আমাদের সম্পদের কিছুটা অংশও যদি দুস্থদের জন্য ব্যয় করতে পারি তাহলে সেটা হবে লায়নিজমের সার্থকতা।
তিনি লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং এর ২০১৯-২০ সেবা বর্ষের নতুন কমিটির দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় নগরীর সিনিয়রস’ ক্লাবে এ অনুষ্ঠানে লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং এর পক্ষে লায়ন্স ক্লাবস ইন্টারন্যাশনাল ডিস্ট্রিক্ট ৩১৫বি৪ এর গভর্নর লায়ন কামরুন মালেককে সংবর্ধনাও দেয়া হয়।
দুস্থ ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জন্য কাজ করার মধ্য দিয়ে ‘হাসির তরে সেবা’ কলের বাস্তবায়ন করার ঘোষণা দিয়ে লায়ন কামরুন মালেক বলেন, দুস্থদের মুখে হাসি ফোটাতে পারলেই আমার কলের সার্থকতা পাবে। যারা হাসতে জানে না, যারা একবেলা খায় এবং একবেলা না খেয়ে ঘুমায় তাদের জন্য কাজ করব। আমরা যদি ওদের মুখে এক চিলতে হাসি ফোটাতে পারি তাহলে সেটাই হবে আমাদের জন্য অনেক বড় পাওয়া।
লায়ন্স ক্লাবস ইন্টারন্যাশনাল ডিস্ট্রিক্ট ৩১৫বি৪ এর সম্মান অক্ষুণ্ন রাখার জন্য সর্বোচ্চ শ্রম দিয়ে কাজ করার ঘোষণা দিয়ে লায়ন কামরুন মালেক বলেন, আমি ইন টাইম কাজ করবো। পূর্বসূরীরা যে কাজগুলো করে গেছেন সেগুলো অব্যাহত রাখবো। এসময় তিনি লায়ন্স ক্লাবস ইন্টারন্যাশনাল ডিস্ট্রিক্ট ৩১৫বি৪ এর অতীতের বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরে বলেন, স্থায়ী প্রকল্পগুলো কখনো বন্ধ হতে দিব না। সবার সাথে থাকব। সবাইকে ভালোবাসব এবং আমাদের ডিস্ট্রিক্টের জন্য যা কিছু করতে হয়, সবাইকে সাথে নিয়ে করবো ইনশাল্লাহ।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন প্রথম ভাইস জেলা গভর্নর লায়ন ডা. সুকান্ত ভট্টাচার্য, কেবিনেট সেক্রেটারী লায়ন গোপল কৃষ্ণ লালা, কেবিনেট ট্রেজারার লায়ন এস এম আশরাফুল আলম আরজু।
প্রাক্তন জেলা গভর্নরদের মধ্যে বক্তব্য দেন, লায়ন শফিউর রহমান, লায়ন এম এ মালেক, লায়ন এ, কাইয়ুম চৌধুরী, লায়ন সামশুল হক, লায়ন রূপম কিশোর বড়ুয়া, লায়ন পি আর সিনহা, লায়ন রফিক আহমেদ, লায়ন ডা. শ্রীপ্রকাশ বিশ্বাস, লায়ন প্রফেসর এমডিএম কামাল উদ্দীন, লায়ন মোস্তাক আহমেদ, লায়ন শাহ আলম বাবুল এবং লায়ন মনজুরুল আলম মনজু।
দুই পর্বের অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে লায়ন সাধন কুমার ধর এবং দ্বিতীয় পর্বে লায়ন নিশাত ইমরান সভাপতিত্ব করেন। আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন, সিনিয়রস’ ক্লাব লিমিটেডের চেয়ারম্যান ডা. সেলিম আকতার চৌধুরী। উপস্থিত ছিলেন সরকারের যুগ্ম সচিব নাজনীন কাউসার চৌধুরী।
লায়ন ডা. মেজবাহ উদ্দিন তুহিন ও লায়ন আবদুর রব শাহীনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে লায়ন এম. এ মালেক বলেন, আমাদের নিজস্ব জীবনে, পারিবারিক জীবনে, সামাজিক জীবনে, রাষ্ট্রীয় জীবনে লায়ন্সের এথিকস’গুলো আমরা মেনে চলতে পারি, যদি প্রতিফলিত করতে পারি তাহলে আমাদের সমাজে যে হিংসা, রাজনৈতিক সমস্যা সেগুলো অনেক কমে যাবে। লায়ন্স ক্লাবস ইন্টারন্যাশনাল ডিস্ট্রিক্ট ৩১৫বি৪ এর গর্ভনর লায়ন কামরুন মালেক এবং লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং এর প্রেসিডেন্ট লায়ন নিশাত ইমরানের হাতকে সকলে শক্তিশালী করবেন। যাতে সকলে মিলে এই ড্রিস্ট্রিক্টকে সেবার পথে আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে পারি। তিনি বলেন, সকলে মিলে যে কাজ করতে পারবো সেটা একজনের পক্ষে সম্ভব হবে না।
লায়ন রফিক আহমেদ বলেন, যোগ্যতা বলেই জেলা গর্ভনর হয়েছেন লায়ন কামরুন মালেক। স্বমহিমায় উজ্জ্বল তিনি।
লায়ন মোস্তাক আহমেদ বলেন, বিশ্বয়ানের যুগে নারী বলে কথা নেই। যার যোগ্যতা আছে তিনি নেতৃত্ব দেবেন। যোগ্যতা আছে বলেই লায়ন কামরুন মালেক জেলা গর্ভনর হয়েছেন।
লায়ন শাহ আলম বাবুল বলেন, আমি আশা করবো প্রাক্তন সব জেলা গর্ভনর মিলে তাঁর হাতকে শক্তিশালী করবো।
লায়ন মনজুরুল আলম মনজু বলেন, লায়ন কামরুন মালেক নিজ গুণে অধিষ্ঠিত। তাঁর প্রাপ্তি সময়ের দাবি। বিগত সময়ে যেভাবে জেলার কর্মকাণ্ডে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখেছেন তাতে তাঁকে (কামরুন মালেক) একজন পরিপূর্ণ নেতা বলা যায়। আমরা আশা করবো, তার নেতৃত্বে আমাদের জেলা আরো গতিশীল হবে।
লায়ন ডা. সুকান্ত ভট্টাচার্য বলেন, লায়ন্স ক্লাবস ইন্টারন্যাশনাল ডিস্ট্রিক্ট ৩১৫বি৪কে সমৃদ্ধ করতে চাইলে আমাদের গর্ভনর কামরুন মালেকের হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। হাসির তরে সেবা করবো, এই বিষয়টাকে বাস্তবায়ন করতে চাইলে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।
সাবেক লেডি গভর্নর লায়ন ফাতেমা রহমান সানজি বলেন, নিজ যোগ্যতায় গভর্নর হয়েছেন কামরুন মালেক। তাঁর হাত ধরে লায়নিজমের পতাকা আরো এগিয়ে যাবে।
লায়ন গোপল কৃষ্ণ লালা বলেন, লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং ৬০ বছরের একটি প্রতিষ্ঠান। দীর্ঘ এ সময়ে সেবাকার্যক্রমের মাধ্যমে সমাজের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছে এ ক্লাব। নতুন নেতৃত্বের হাত ধরেও এগিয়ে যাবে এ ক্লাব।
ক্লাব অব চিটাগাং এর নবনির্বচিত প্রেসিডেন্ট লায়ন নিশাত ইমরান সকলের সহযোগিতা নিয়ে ক্লাবকে এগিয়ে নেয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

x