শীত মানেই ফুলকপি

রেসিপি দিয়েছেন আফসানা নুমা

রবিবার , ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ at ৫:০৬ পূর্বাহ্ণ

ফুলকপির নিরামিষ
উপকরণ : একটি বড় সাইজের ফুলকপি (টুকরো করা), পোস্ত বাটা ২ চামচ, চার মগজ বাটা ১ চামচ, নারকেলের দুধ ১ কাপ, লবণ আন্দাজ মতোন, হলুদ, মরিচ গুঁড়ো, কাঁচামরিচ বাটা, ধনেপাতা বাটা এবং সরষের তেল পরিমাণমতো, মটরশুঁটি ১ কাপ, দুইটি টমেটো বাটা আর ক্যাপসিকাম টুকরো কয়েকটি।
প্রণালি : প্রথমে কড়াইতে তেল গরম করে তাতে ফুলকপির টুকরোগুলো দিয়ে ভালো করে ভেজে নিন। পরিমাণ মতো লবণ ও হলুদ দিন। এবার আঁচ কমিয়ে দিয়ে একে একে পোস্ত বাটা, চার মগজ বাটা, মরিচ গুঁড়ো, মটরশুঁটি, টমেটো বাটা এবং ক্যাপসিকাম টুকরো উপরিউক্ত পরিমাণে দিয়ে কষিয়ে নিন। কড়াইতে তেল ছেড়ে দিলে, নারকেলের দুধ দিয়ে ঢেকে দিন ১০ মিনিট। এবার ধনেপাতা বাটা এবং কাঁচা মরিচ বাটা দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

দই ফুলকপি
উপকরণ : মাঝারি আকারের ফুলকপি একটি, টক দই ৫০ গ্রাম, রসুন ২ কোয়া, পেঁয়াজ ২ টি, আদা দুই চামচ, চিনি ১ চামচ, ১০০ গ্রাম ঘি বা তেল, ১ চামচ গরম মসলার গুঁড়ো এবং লবণ আন্দাজ মতো।
প্রণালি : প্রথমে ফুল ভেঙে ফুলকপি টুকরো টুকরো করুন। এবার পেঁয়াজ কাটুন। কাটা পেঁয়াজের কিছুটা রেখে দিন, বাকিটা আদার সঙ্গে ভালো করে বাটুন। এই আদা ও পেঁয়াজ বাটার মধ্যে লবণ ও চিনি মিশিয়ে রেখে দিন। এখন ফুলকপির টুকরোতে দই মাখিয়ে তা ঘণ্টাখানিক রাখুন। কড়াইতে ঘি বা তেল দিয়ে যে কাটা পেঁয়াজগুলো রেখেছিলেন, তা ভেজে দই মাখা ফুলকপি তাতে ছাড়ুন। একটু ভাজা হলে তার ভেতর আদা বাটা ও পেঁয়াজ বাটা এবং রসুন দিয়ে কষান। তার ভেতর এবার দু কাপ গরম পানি দিয়ে ভাল করে ফোটান। ফুলকপি সেদ্ধ হয়ে গেলে তা নামিয়ে তার ভেতর গরম মসলা মিশিয়ে পরিবেশন করুন।

ফুলকপির চিংড়ি ভাত
উপকরণ : একটা মাঝারি সাইজের ফুলকপি, চিংড়ি মাছ মাঝারি আকারের (ছোট বাটির এক বাটি), ২০০ গ্রাম বাসমতি চাল, ১ কাপ মটরশুঁটি, টমেটো পেস্ট এক কাপ, ক্যাপসিকাম টুকরো পরিমাণমতো, গাওয়া ঘি ৪ চা চামচ, লবণ, হলুদ, চিনি এবং মরিচ গুঁড়ো আন্দাজমতো, গোলমরিচ গুঁড়ো ১/২ চামচ, কাঁচা মরিচ বাটা ১ চামচ, রসুন এবং আদা বাটা আধা চামচ।
প্রণালি : প্রথমে ফুলকপি থেকে ফুলগুলি ছাড়িয়ে নিন। এবার বাসমতি চালের ভাত করুন, চালটা একটু শক্ত থাকতে নামাবেন। কড়াইতে পরিমান মত সাদা তেল দিয়ে, চিংড়ি মাছ গুলি ভেজে পাশে রাখুন। ওই তেলে তেজপাতা, শুকনো মরিচ, গোটা জিরা এবং গরম মসলার ফোঁড়ন দিন। একটু নাড়াচাড়া করে, ফুলকপির টুকরো গুলিকে কড়াই এর মধ্যে দিয়ে দিন। ভালোভাবে ভাজা হয়ে গেলে তাতে রসুন বাটা, আদা বাটা, লবণ, হলুদ, মরিচ গুঁড়ো, টমেটো পেস্ট, মটরশুঁটি, ক্যাপসিকাম এবং চিনি উপরিউক্ত পরিমাণে দিয়ে, কম আঁচে নাড়াচাড়া করুন। প্রয়োজনে সামান্য পানি দিতে পারেন। ১০ মিনিট পর তাতে ভাত আর ভাজা চিংড়ি মাছ দিয়ে দিন। ব্যাস আপনার রান্না একদম তৈরি। শুধুমাত্র নামানোর আগে, কাঁচা মরিচ, ঘি ও গোলমরিচ ছড়িয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

ইলিশ ফুলকপি তরকারি
উপকরণ : ৫-৬ পিস ইলিশ মাছের টুকরা ধুয়ে রাখুন। ফুলকপির টুকরা ২ কাপ, পেঁয়াজ মিহি করে কাটা আধা কাপ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, হলুদ গুঁড়া ২ চা চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, লবণ স্বাদ অনুযায়ী, কাঁচামরিচ ৩-৪টি, তেল পরিমাণ মতো এবং পানি অল্প।
প্রণালি : একটি কড়াইয়ে তেল গরম করে তাতে মিহি করা পেঁয়াজ হালকা করে ভেজে নিয়ে একে একে সব বাটা ও গুঁড়া মসলা, লবণ এবং অল্প পানি দিয়ে মসলা ভালো করে কষিয়ে নিন। তারপর তাতে ইলিশ মাছের টুকরা এবং ফুলকপির টুকরা দিয়ে আরও একটু কষিয়ে এবং কাঁচামরিচ দিয়ে ঢেকে ১০ মিনিট রান্না করে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

চিকেন ফুলকপি ভুনা
উপকরণ : মুরগির মাংস মাঝারি টুকরা করা ৫০০ গ্রাম, ফুলকপি টুকরা ২ কাপ, পেঁয়াজ টুকরা করা আধা কাপ, আদা বাটা ১ চা চামচ, রসুন বাটা ২ চা চামচ, হলুদ গুঁড়া ২ চা চামচ, গরম মসলা গুঁড়া ১ চা চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, লবণ স্বাদ অনুযায়ী, তেল পরিমাণ মতো, ধনেপাতা কুচি অল্প, আস্ত কাঁচামরিচ ৫-৬টি, পানি প্রয়োজন মতো।
প্রণালি : প্রথমে মুরগির মাংস ধুয়ে নিন। তারপর একটি কড়াইয়ে তেল গরম করে তাতে প্রথমে পেঁয়াজ গরম করে মসলা গুঁড়া ও লবণ দিয়ে হালকা করে ভেজে নিয়ে মুরগির টুকরা ও কুলকপি টুকরা হালকা করে ভেজে নিয়ে ফুলকপির টুকরা তুলে রাখুন। এরপর মুরগিতে একে একে সব বাটা ও গুঁড়া মসলা দিয়ে ভালো করে কষিয়ে তাতে ধনেপাতা কুচি, কাঁচামরিচ, ভাজা ফুলকপি এবং অল্প পানি দিয়ে কিছুক্ষণ ঢেকে ভুনা ভুনা করে রান্না করে নামিয়ে পরিবেশন করুন গরম ভাতের সঙ্গে।

x