শহীদ কাজী সাদেক হাসান আন্তর্জাতিক রেটিং উন্মুক্ত দাবা প্রতিযোগিতা ১৯ ডিসেম্বর শুরু

ক্রীড়া প্রতিবেদক

রবিবার , ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ at ৮:৫৮ পূর্বাহ্ণ

মুক্তিযুদ্ধের মহান শহীদ, মেধাবী দাবাড়ু শহীদ কাজী সাদিক হাসান স্মরণে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী পরিষদ ১৯৮২ ব্যাচ আয়োজন করতে যাচ্ছে শহীদ কাজী সাদেক হাসান আন্তর্জাতিক রেটিং উন্মুক্ত দাবা প্রতিযোগিতা। আগামী ১৯ ডিসেম্বর সিজেকেএস কনভেনশন হলে শুরু হবে এই দাবা প্রতিযোগিতা। যা শেষ হবে আগামী ২৫ ডিসেম্বর। এই প্রতিযোগিতাটি বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশন এবং আন্তর্জাতিক দাবা সংস্থা (ফিদে) কর্তৃক অনুমোদিত। এই প্রতিযোগিতায় দেশ বিদেশের দুই শতাধিক দাবাড়ু অংশ নেবেন বলে আশা করা হচ্ছে। যাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছেন রেটেড দাবাড়ু। আর বাকিরা একেবারে নবাগত। দাবার নিয়ম অনুযায়ী রেটেড দাবাড়ুদের সাথে খেললে নতুন দাবাড়ুদের রেটেড দাবাড়ু হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার সুযোগ থাকে। মূলত সে লক্ষ্যে রেটেড দাবাড়ু বাড়ানোর উদ্দেশ্যে এই প্রতিযোগিতার অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশন এবং আন্তর্জাতিক দাবা সংস্থা।
মেধাবী ছাত্র কাজী সাদিক হাসানকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের ছাত্র থাকা অবস্থায় পাক বাহিনী তার পরিবারের বেশ কয়েকজন সদস্য সহ হত্যা করে। তিনি ছিলেন পূর্ব পাকিস্তান দাবার চ্যাম্পিয়ন। সে সাথে তিনি ছিলেন অল পাকিস্তান দাবায় তৃতীয়। সে দাবাড়ুর স্মৃতিকে নতুন প্রজন্মের কাছে স্মরণ করিয়ে দিতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮২ ব্যাচ এই দাবা প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে যাচ্ছে। এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া দাবাড়ুদের উৎসাহিত করতে এক লক্ষ ষাট হাজার পাঁচ শত টাকার ২৭টি পুরস্কার প্রদান করবে। যেখানে চ্যাম্পিয়ন এবং রানার্স আপ সহ সার্বজনীন পুরস্কার থাকবে ১০টি। বাকি ১৭টি পুরষ্কার থাকবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী সগ অনূর্ধ্ব-১২ এবং ১৬ বছর বয়সীদের জন্য। মুলত দাবাকে নতুন প্রজন্মের কাছে জনপ্রিয় করতে এই উদ্যোগ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮২ ব্যাচের। সে সাথে শহীদ কাজি সাদিক হাসানকে স্মরণ করিয়ে দেওয়া।
সার্বজনীন ক্যাটাগরীতে চ্যাম্পিয়ন পাবে ৩০ হাজার টাকা। রানার্স আপ পাবে ২০ হাজার টাকা। তৃতীয় স্থান অর্জনকারী পাবে ১৫ হাজার টাকা। চতুর্থ স্থান অর্জনকারী পাবে ১০ হাজার টাকা। ৫ম থেকে ৭ম স্থান পর্যন্ত অর্জনকারী পাবে ৮ হাজার টাকা করে। ৮ম স্থান অর্জনকারী পাবে ৬ হাজার টাকা। নবম এবং দশম স্থান অর্জনকারী পাবে ৫ হাজার টাকা। এছাড়া চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের বিশেষ পুরস্কারের ক্ষেত্রে প্রথম স্থান অর্জনকারী পাবে ৪ হাজার টাকা। দ্বিতীয় স্থান অর্জনকারী পাবে সাড়ে তিন হাজার টাকা। তৃতীয় থেকে সপ্তম স্থান অর্জনকারী পাবে ২ হাজার টাকা কারে। বিদেশি পুরুষ এবং মহিলা উভয়ে পাবে ৩ হাজার টাকা করে। অনূর্ধ্ব-১২ বিভাগের প্রথম স্থান অর্জনকারী পাবে ৩ হাজার টাকা। দ্বিতীয় স্থান অর্জনকারী পাবে আড়াই হাজার টাকা। অনূর্ধ্ব-১৬ বিভাগে প্রথম স্থান অর্জনকারী পাবে ৩ হাজার টাকা। আর দ্বিতীয় স্থান অর্জনকারী পাবে আড়াই হাজার টাকা। এছাড়া দৃষ্টি প্রতিবন্ধী প্রথম স্থান অর্জনকারী পাবে ৩ হাজার টাকা আর দ্বিতীয় স্থান অর্জনকারী পাবে আড়াই হাজার টাকা। ৯ রাউন্ডের সুইস লীগ পদ্ধতিতে পরিচালিত হবে এই দাবা প্রতিযোগিতা।
গতকাল সিজেকেএস সম্মেলন কক্ষে এই প্রতিযোগিতার প্রাক্কালে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন শহীদ কাজী সাদেক হাসান আন্তর্জাতিক রেটিং উন্মুক্ত দাবা প্রতিযোগিতার প্রধান সমন্বয়ক এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী পরিষদ ১৯৮২ এর সদস্য সচিব সুরজিৎ বড়ুয়া। বক্তব্য রাখেন শহীদ জায়া বেগম মুশতারী শফি, বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের সাধারন সম্পাদক সৈয়দ শাহাবুদ্দিন শামীম, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী পরিষদ ১৯৮২ এর সভাপতি জসিম উদ্দিন মাহমুদ, সিজেকেএস সহ সভাপতি হাফিজুর রহমান, সিজেকেএস দাবা কমিটির সহ সভাপতি অধ্যাপক নোমান আহমদ সিদ্দিকী, শহীদ সাদিক হাসানের ছোট ভাই কাজি সাজ্জাদ হাসান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিজেকেএস যুগ্ম সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ শাহাবুদ্দিন মো. জাহাঙ্গীর, সিজেকেএস দাবা কমিটির সম্পাদক তনিমা পারভীন সহ দাবা কমিটির কর্মকর্তাবৃন্দ।

x