লড়াই চলবে গানেই বললেন আফগান স্টার জাহরা

বুধবার , ৩ এপ্রিল, ২০১৯ at ৯:৫০ পূর্বাহ্ণ
68

শুধু সঙ্গীত দিয়ে তিনি লড়তে চান তালেবানের সঙ্গে। আর সেই লক্ষ্য নিয়ে ‘আমেরিকান আইডল’-এর আফগান সংস্করণ ‘আফগান টিভি স্টার’-এ জিতে হইচই ফেলে দিয়েছেন জাহরা এলহাম। গত ১৩ বছরে এই শোয়ে কোনও মহিলা জিততে পারেননি। ১৪তম পর্বে জয়ের হাসি হাসলেন জাহরা।
গত সপ্তাহে আফগান স্টার-এ জিতে শিরোনামে আসেন আফগানিস্তানের হাজারা জাতিগোষ্ঠীর এই মেয়ে। জাহরার উঁচু তারে বাঁধা রুক্ষ অথচ ব্যতিক্রমী সুরের জাদুতে মুগ্ধ সবাই। হাজারা এবং পারসি লোকগান শুনিয়েছেন তিনি। ঐতিহ্যবাহী রঙচঙে আফগান পোশাকে আত্মবিশ্বাসী জাহরা চমকে দিয়েছেন অনেককেই।
এখন মার্কিন প্রশাসন যুদ্ধ শেষ করে তালেবানের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে এই দেশ থেকে পাততাড়ি গোটানোর পথে। আর সেটা বড় উদ্বেগের কারণ অনেকের কাছে। তালিবান ফের ক্ষমতা পেয়ে যাবে না তো- এ আশঙ্কা রয়েছে অনেকের মাঝে। ভবিষ্যতে যদি প্রশাসনিক স্তরে তালিবান ক্ষমতা পেয়ে যায়? এ প্রশ্নে জাহরা বলেন, ‘আমি আমার গান দিয়েই লড়াই করব, কারণ আমার জীবনে গানই সব। আর সেটা দিয়েই ভবিষ্যতটাও উজ্জ্বল করতে চাই আমি।’
সমপ্রতি এক টিভি সাক্ষাৎকারে সবে কুড়িতে পা দেওয়া জাহরা বলেছেন, ‘নিজেরই খুব গর্ব হচ্ছে। কিন্তু এটাও কী আশ্চর্য বলুন, এত বছর ধরে কোনও মহিলা এই খেতাব জিততে পারেননি!’
এমনিতে আত্মবিশ্বাসে ফুটতে থাকা মেয়ে ক্যামেরার সামনে যথেষ্ট জড়োসড়ো। জানালেন, পরিবারে কেউই গান করেন না। ইউটিউবে নানা ভিডিয়ো দেখে প্রতিযোগিতায় যোগ দেওয়ার কথা মাথায় আসে। ভালবাসেন আরিয়ানা সৈয়দের ভিডিয়ো। আরিয়ানা সৈয়দ, আফগান পপ তারকা। জাহরা বলেন, ‘আমি চাই, আমার কণ্ঠও এ বার আফগানিস্তানের মেয়েদের জন্য কথা বলুক।’ জাহরা বলেন, ‘আরিয়ানা সৈয়দকে দেখে যেমন আমি অনুপ্রাণিত হয়েছি, তেমনই আমার গান থেকে অন্য মেয়েরা সাহস পাক, গান করুক। আরিয়ানাকে দেখে আমি ভাবতাম, ও যদি পারে, আমিও পারব। ওর তো আমার মতোই দু’টো হাত আর দু’টো পা!’ জীবনে যত যুদ্ধই চলুক, রাজনীতিতে আসতে চান না জাহরা। -আনন্দবাজার পত্রিকা

x