রোহিঙ্গাদের স্থায়ী প্রত্যাবাসনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতা নেওয়া হচ্ছে

উখিয়ায় ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

উখিয়া প্রতিনিধি

বুধবার , ৩০ জানুয়ারি, ২০১৯ at ৮:২৯ পূর্বাহ্ণ
43

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সারা দেশে দুর্যোগপ্রবণ এলাকাগুলোতে জানমালের ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনতে বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। উখিয়া ও টেকনাফে আশ্রিত ১১ লক্ষাধিক রোহিঙ্গাকে স্থায়ীভাবে ফেরত পাঠাতে মিয়ানমারের সাথে দ্বিপাক্ষিক আলোচনা ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতা নেওয়া হচ্ছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উখিয়ায় ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি বা সিপিপির ইউনিট উদ্বোধনকালে প্রতিমন্ত্রী এসব মক্তব্য করেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, ১৯৭২ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের দুর্যোগ মুহূর্তে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সিপিপি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। দেশের অনেক জায়গায় দুর্যোগ দেখা দিলেও সীমিত সম্পদের কারণে সর্বত্র সংস্থার পরিধি বাড়ানো সম্ভব হয়নি। সারাদেশে ১৩টি জেলায় বর্তমানে ৪০টি সিপিপি ইউনিট রয়েছে। বঙ্গপোসাগর তীরবর্তী উখিয়া উপজেলাকে দুর্যোগপ্রবণ হিসেবে চিহ্নিত করে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে উখিয়ায় ৪১তম ইউনিট চালু করা হচ্ছে। ডা. এনামুর বলেন, সিপিপি উখিয়া ইউনিটের আওতায় ৩৭৫ জন স্বেচ্ছাসেবী সদস্য রয়েছে।
তাদেরকে পর্যায়ক্রমে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে মানবতার সেবক হিসেবে গড়ে তোলা হবে।
এ সময় তিনি বলেন, ২০১৭ সালে নির্যাতিত ও নিপীড়িত রোহিঙ্গাদের যখন আশ্রয় দেওয়া হচ্ছিল, তখন বাংলাদেশ বিশেষ করে উখিয়া-টেকনাফের লোকজন ও প্রশাসন সহ কেউ প্রস্তুত ছিল না। এ ধরনের একটি দুর্যোগ সরকার খুবই সফলতার সাথে মোকাবেলা করতে সক্ষম হয়েছে। বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রশংসা কুড়িয়েছে। এ অর্জন শুধুমাত্র উখিয়া ও টেকনাফের জনগণ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। প্রতিমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্ত উখিয়া ও টেকনাফে ২০ হাজার দরিদ্র পরিবারের মাঝে প্রতি মাসে ২০ কেজি করে বিনা মূল্যে চাউল বিতরণ করা হচ্ছে। এছাড়া আরো নানা ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনকে সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে।
উখিয়া উপজেলা পরিষদ মিলায়তনে সিপিপি ইউনিটের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উখিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নিকারুজ্জামান চৌধুরী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শাহ কামাল, কক্সবাজারস্থ শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার, সরকারের অতিরিক্ত সচিব মো. আবুল কালাম, সিপিপি পরিচালক আহমুদুল হক, উখিয়া আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী, আমেরিকান রেড ক্রসের কান্ট্রি প্রতিনিধি উরসালা সহ দেশি বিদেশী প্রতিনিধিগণ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সিপিপির পরিচালক (অপারেশন) মো. নুর ইসলাম খান উশি।

x