রাজপরিবারের আপত্তির মুখে ‘পানিপথ’

মঙ্গলবার , ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ at ৬:৫৫ পূর্বাহ্ণ

 

রাজস্থানের রাজপরিবারের একজন সদস্য ও বিধানসভার মন্ত্রী বিশ্বেন্দ্র সিং অভিযোগ করেছেন, আশুতোষ গোয়ারিকরের ‘পানিপথ’ সিনেমায় তার পূর্বপুরুষ ভরতপুরের মহারাজা সুরাজমলের সম্মানহানি করা হয়েছে। আশুতোষ গোয়ারিকর তার সিনেমায় ১৭৬১ সালে সংঘঠিত পানিপথের তৃতীয় যুদ্ধকে তুলে ধরেছেন। এ যুদ্ধে একদিকে ছিলেন মারাঠারা, অপরদিকে ছিলেন আফগান যোদ্ধা আহমদ শাহ আবদালি। সিনেমাটি ৬ ডিসেম্বর মুক্তি পেয়েছে। রাজস্থানের মন্ত্রী বিশ্বেন্দ্র সিং অভিযোগ করে বলেন, সিনেমাটিতে দেখানো হয়েছে ভরতপুরের মহারাজা সুরাজমল মারাঠাদের যুদ্ধক্ষেত্র থেকে পিছু হটার সময় সাহায্য করেননি। মহারাজকে এভাবে উপস্থাপন করে জাঠদের অনুভূতিতে আঘাত করা হয়েছে। খবর বাংলানিউজের।

এক বিবৃতিতে এই মন্ত্রী বলেন, এটা খুব দুঃখজনক যে, ভরতপুরের মহারাজা সুরাজমল জাঠকে ‘পানিপথ’ সিনেমার ঐতিহাসিক ঘটনা চিত্রায়ণে অত্যন্ত ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। আমি মনে করি, সিনেমাটি নিষিদ্ধ হওয়া উচিত। এটা হরিয়ানা, রাজস্থান ও উত্তর ভারতের জাঠ সমপ্রদায়ের মধ্যে ব্যাপক নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া তৈরি করেছে। রাজস্থানের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজেও সিনেমাটির সমালোচনা করেছেন। তবে রাজস্থানের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট জানান, তিনি এখনো সিনেমাটি দেখেননি। সিনেমাটিতে আপত্তিজনক কিছু থাকলে তার সরকার অবশ্যই যথাযথ ব্যবস্থা নেবে। আশুতোষ গোয়ারিকরের ‘পানিপথ’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন সঞ্জয় দত্ত, অর্জুন কাপুর ও কৃতি শ্যানন। ৬ ডিসেম্বর মুক্তির পর তিনদিনেই সিনেমাটি আয় করেছে ১৭ কোটি রুপি।

x