রাঙ্গুনিয়ায় মুখোশধারীদের অতর্কিত গুলিতে অটোরিকশাচালক গুলিবিদ্ধ

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি

রবিবার , ১৪ জুলাই, ২০১৯ at ৯:২৩ অপরাহ্ণ
125
রাঙ্গুনিয়ায় মুখোশধারীদের অতর্কিত গুলিতে এক সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।
আজ রবিবার (১৪ জুলাই) মধ্যরাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার সরফভাটা ইউনিয়নের হাজারীখীল এলাকার ইসমাইল সিকদার কেজি স্কুলের পাশে এ ঘটনা ঘটে। গুলিবিদ্ধ যুবকের নাম শাহেদুল ইসলাম (২৮)।
তিনি ওই এলাকার আলমগীর মেম্বার বাড়ির আবদুল গফুরের পুত্র।
ঘটনায়  তার কপালের ঠিক মাঝখানে গুলি লেগে গুরুতর আহত হন তিনি।
বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
সর্বশেষ খবর অনুযায়ী তার অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা যায়।
এ ঘটনা কারা এবং কীজন্য ঘটিয়েছে সেই বিষয়ে কিছুই জানা যায়নি। তবে ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটনে অভিযান চালাচ্ছে বলে জানায় পুলিশ।
সরফভাটা ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য আলমগীর সিকদার নিজে প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়ে বলেন, ‘এলাকার মানুষের বিশ্বাস হাফেজিয়া আলতাফিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানায় থাকা শিক্ষার্থীদের দীর্ঘদিন ধরে জ্বীন বিরক্ত করছেন। এলাকার মানুষ বৈদ্য দিয়ে জ্বীন তাড়ানোর জন্য রাতে হাট (আসর) বসায়। ওই রাতে অন্তত দুইশ’ গ্রামের মানুষ উপস্থিত ছিলেন। জ্বীন তাড়ানোর যাবতীয় কাজ শেষ হতে হতে রাত প্রায় ৩টা বেজে যায়। বৈঠক শেষে সবাই বাড়ি ফেরার পথে স্থানীয়রা মুখোশধারী দু’জন যুবককে দেখতে পেয়ে তাদের দাঁড়াতে বলে। তারা না দাঁড়ালে পেছন থেকে তাদের লক্ষ্য করে টর্চলাইটের আলো জ্বালালে তারা স্থানীয়দের ওপর অতর্কিত এক রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে। গুলির শব্দে সবাই ছত্রভঙ্গ হয়ে এদিক-সেদিক পালিয়ে যায়।’
তিনি বলেন, ‘আনুমানিক আরো আধ ঘণ্টা পর সবাই বের হলে রাস্তার উপর গুলিবিদ্ধ অবস্থায় শাহেদুল ইসলামকে পড়ে থাকতে দেখা যায়। তাকে উদ্ধার করে পৌনে ৫টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে এবং সেখান থেকে তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। গুলিবিদ্ধ যুবক শাহেদুল পেশায় সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালক এবং পরিবারে তার স্ত্রী এবং ১ পুত্র ও ১ কন্যা সন্তান রয়েছে।’
রাঙ্গুনিয়া থানার ওসি (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘এ ঘটনায় আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রাথমিক তদন্ত চালিয়েছি। কী কারণে এই ঘটনা ঘটেছে সে বিষয়টি স্পষ্ট নয় তবে পূর্বের কোনো দ্বন্ধের কারণে এ ঘটনা ঘটেছে বলে মনে হয় না। এই বিষয়ে আরো তদন্ত চলছে, ঘটনার রহস্য উদ্ধারে আমরা অভিযান চালাচ্ছি।’
x