রাঙ্গুনিয়ায় বৈদ্যুতিক ফাঁদে আটকে হাতির মৃত্যু

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি

বুধবার , ২০ নভেম্বর, ২০১৯ at ২:৪০ পূর্বাহ্ণ
153

রাঙ্গুনিয়ার পদুয়া ইউনিয়নে পেতে রাখা বৈদ্যুতিক ফাঁদে আটকে গিয়ে একটি হাতির মৃত্যু হয়েছে। গত সোমবার রাতে ১২টার দিকে ইউনিয়নের নারিশ্চা জয়নগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নারিশ্চা বিট কর্মকর্তা মুহাম্মদ আব্দুল মান্নান বলেন, জয়নগর এলাকার সায়ের আহমদের পুত্র আবুল হাসেম (৫০) তার বসতবাড়ি ও কলাগাছ হাতির তাণ্ডব থেকে রক্ষা করতে বৈদ্যুতিক ফাঁদ পেতে রাখেন। সেই ফাঁদে গত সোমবার রাতে প্রায় ৩ টন ওজনের ওই হাতিটি মারা যায়। পরে কাউকে না জানিয়ে স্থানীয়দের সহায়তায় হাতিটি মাটিতে পুঁতে ফেলেন তিনি। খবর পেয়ে গতকাল মঙ্গলবার বন অফিসের কর্মকর্তারা হাতিটি উদ্ধার করে। পরে উপজেলা প্রাণীসম্পদ অফিসের চিকিৎসক হারুনূর রশীদ, শেখ রাসেল ও সহকারী ভেটেরিনারি সার্জন ডা. আলিমুল রাজী হাতিটির ময়নাতদন্ত করেন। ডা. আলিমুল রাজী বলেন, হাতিটির সারা শরীরে বৈদ্যুতিক শকের পোড়া দাগ রয়েছে।
উপজেলা রেঞ্জ কর্মকর্তা প্রহলাদ চন্দ্র রায় বলেন, আমরা বন্য প্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইনে জয়নগর এলাকার আবুল হাসেম (৫০), তার ছেলে মহিউদ্দিন (২৮), সাহেব উদ্দিন (২৫) ও প্রতিবেশী মেরা মিয়ার ছেলে মো. জেবল হোসেনের (৪০) নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ১৫-২০ জনকে বিবাদী করে মামলা দায়ের করেছি।
এদিকে কৃষকরা জানিয়েছেন, পাকা আমন ধানের গন্ধে আর খাবারের খোঁজে প্রায় লোকালয়ে হানা দিচ্ছে বন্য হাতির দল। উপজেলার কোদালা, শিলক, সরফভাটা ও পদুয়া ইউনিয়নের পাহাড়ি এলাকায় এই তাণ্ডব চলছে। গত এক সপ্তাহে হাতির পাল ৫ একরেরও বেশি ধান নষ্ট করেছে। তবে পাকা আমন ধান বাঁচাতে কৃষকরা রাত জেগে পাহারা দিলেও এ ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের কোনো তৎপরতা নেই বলে অভিযোগ করেছে স্থানীয়রা।

x