রাখাইনে স্বস্তি ফেরাতে বৈশ্বিক কূটনৈতিক চাপ বৃদ্ধি করা হচ্ছে

রোহিঙ্গাদের সাথে বৈঠক শেষে ইয়াং হি লি

উখিয়া প্রতিনিধি

মঙ্গলবার , ২১ জানুয়ারি, ২০২০ at ১১:০০ পূর্বাহ্ণ
30

জাতিসংঘের মিয়ানমার বিষয়ক বিশেষ দূত ইয়াং হি লি বলেন, রাখাইনে সশস্ত্র সংঘাত দিন দিন বিস্তৃতি ঘটছে। রাখাইনের চলমান সহিংসতা নিরসন পূর্বক স্বস্তি ফিরিয়ে এনে রোহিঙ্গাদের নিরাপদে ফিরে যাওয়ার পরিবেশ তৈরিতে জাতিসংঘ কূটনৈতিক চাপ বৃদ্ধি করেছে। গতকাল সোমবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত কঙবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৭টি রোহিঙ্গা সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি এসব কথা বলেন।
বৈঠক শেষে রোহিঙ্গাদের নতুন সংগঠন আরাকান রোহিঙ্গা ন্যাশনাল ইউনিয়ন-এআরএনইউ চেয়ারম্যান মাস্টার আবদুর রশীদ বলেন, আমরা ইয়াং হি লি এর কাছে রোহিঙ্গাদের ভবিষ্যৎ কি, রোহিঙ্গাদের বিষয়ে গত আড়াই বছরে জাতিসংঘের অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে চেয়েছি।
এসময় তিনি বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা বিশ্বে একটি উল্লেখযোগ্য জটিল সমস্যা। জাতিসংঘের পক্ষ থেকে এ সমস্যার সম্মানজনক ও দীর্ঘস্থায়ী সমাধানে চেষ্টা অব্যাহত রাখা হয়েছে। এ সমস্যার সমাধানে বিশ্ব সম্প্রদায়ের দায়বদ্ধতা রয়েছে। কিন্তু এক্ষেত্রে কয়েকটি রাষ্ট্র তাদের পূর্ব অবস্থানে স্থির থাকায় কিছুটা বিলম্ব হচ্ছে। চীন ও রাশিয়ার ভূমিকায় সমাধানের পথ বিলম্ব হচ্ছে কিনা জানতে চাইলে ইয়াং হি লি বলেন, বিশ্ব সম্প্রদায়ের সঙ্গে জাতিসংঘ কূটনৈতিক তৎপরতা বৃদ্ধি করেছে। যাতে রোহিঙ্গা ও রাখাইন সমস্যার অর্থবহ ও জবাবদিহীতা শক্তিশালী করে মিয়ানমারের উপর চাপ বাড়ানো সম্ভব হয়।
সকাল ১১ টা থেকে দুপুর আড়াই টা পর্যন্ত চলা পৃথক বৈঠকে আলোচনায় অংশ নেন- এআরএনইউ এর চেয়ারম্যান মাস্টার আবদুর রশীদ, ভাইস চেয়ারম্যান মাস্টার নুরুল আলম, মাস্টার ইলিয়াস প্রমুখ।
উখিয়ার কুতুপালং মেগা-১৭ নং ক্যাম্পের সরকারী অফিস কনফারেন্স হলে রোহিঙ্গা সংগঠন গুলোর সঙ্গে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত বৈঠকে সম্প্রতি মিয়ানমারে কারাভোগ শেষে কুতুপালং মেগা বিভিন্ন ক্যাম্প আশ্রয় নেয়া ৬৩ জন থেকে ৫ জন রোহিঙ্গার সাথেও আলাদা বৈঠক করেন ইয়াং হি লি। এরপর তিনি সীমান্তের তুমরু কোনার পাড়া জিরো লাইনে থাকা রোহিঙ্গাদের ক্যাম্প পরিদর্শন করেন।