‘যে হত্যাকাণ্ড আইনসিদ্ধ নয় তা থেকে নিবৃত্ত থাকা উচিত’

রাঙ্গুনিয়া মানবাধিকার সংস্থার সেমিনার

শুক্রবার , ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ at ৫:৪২ পূর্বাহ্ণ

ইউনিভার্সিটি অব ক্রিয়েটিভ টেকনোলজি চিটাগাং-ইউসিটিসির ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনুস বলেন, গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে সঠিক বিচার পাওয়া নাগরিক অধিকার। বিচার বহির্ভুত হত্যা, নিখোঁজ ও গুম পরবর্তী হত্যা মানবাধিকারের চরম লংঘন। কেউ অপরাধ করলে তাকে বিচারের মাধ্যমে আইনে স্বীকৃত সাজা দেয়া পৃথিবীর সর্বত্র অনুসৃত হয়ে আসছে। এর ব্যত্যয়ে বিচারবহির্ভূত প্রক্রিয়ায় সাজা দেয়া বা ক্রসফায়ারের নামে মৃত্যু ঘটানো কোনভাবেই আইনের অনুসরণে হয়েছে, এমনটি দাবি করার সুযোগ নেই। যে হত্যাকাণ্ড আইনসিদ্ধ নয়, তা থেকে নিবৃত্ত থাকা উচিত। তিনি ১০ ডিসেম্বর বিশ্ব মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা রাঙ্গুনিয়া উপজেলা মডেল শাখা ও রাঙ্গুনিয়া পৌরসভা শাখার যৌথ ব্যবস্থাপনায় রাঙ্গুনিয়া ক্লাব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সব কথা বলেন।
সংস্থার উপজেলা শাখার ৩০তম ও পৌরসভা শাখার ১১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মানবাধিকার গবেষক মাওলানা মুহাম্মদ জহুরুল আনোয়ার। প্রথম অধিবেশনে ‘বিচার বহির্ভূত হত্যা ও মানবাধিকার’ বিষয়ক সেমিনারে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন লায়ন সিএসকে সিদ্দিকী। উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন রাঙ্গুনিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম। প্রধান আলোচক ছিলেন বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় ফেডারেশনের প্রধান উপদেষ্টা মো. সাদেকুন নূর সিকদার। আলোচনা করেন সংস্থার আজীবন সদস্য মো. শাহাব উল্ল্যাহ্‌ চৌধুরী, মিজানুর রহমান চৌধুরী, জুুরি ও আর্বিট্রেশন বোর্ড সদস্য প্রফেসর কাজী মো. খাইরুল হক, ইউসুফ জামাল, মো. ইলিয়াছ, শেখ মোজাম্মেল হক, সহ-সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদুল করিম রিংকু, দফ্‌তর সম্পাদক খোরশেদ আলম ফারুকী, পৌরসভা সহ-সভাপতি নূরুল আমিন তালুকদার, মো. নূরুল ইসলাম প্রমুখ। উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি নূরুল ইসলাম আজাদের সঞ্চালনায় সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট বঙ্কিম চন্দ্র দাশ উপজেলা শাখার বার্ষিক প্রতিবেদন ও সাধারণ সম্পাদক এসএম ইফতিখার হোসেন পৌরসভা শাখার বার্ষিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন। এ পর্বে ১৫ ইউনিয়ন শাখার সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও প্রতিনিধিরা বক্তব্য রাখেন। দ্বিতীয় অধিবেশনে ‘আইন সহায়তায়’ এডভোকেট মুহাম্মদ নূরুচ্ছাফা তালুকদার (মরণোত্তর), ‘সমাজসেবায়’ মুহাম্মদ বদিউজ্জামান মাতাব্বার (মরণোত্তর), ‘শিক্ষা বিকাশে’ মুহাম্মদ নূরুল হক তালুকদার (মরণোত্তর), ‘উচ্চতর শিক্ষা ব্যবস্থাপনায়’ মুহাম্মদ ওসমান, ‘সুশাসন প্রতিষ্ঠায়’ মুহাম্মদ শামসুল আলম, ‘ইসলামী আধ্যাত্মিকতায়’ হযরত শাহ্‌সূফী হাজী নূর মুহাম্মদ (রাহ.)-কে ‘মানবাধিকার পুরস্কার’ এবং ‘ইসলামী নারী শিক্ষা ব্যবস্থাপনায়’ আলহাজ্ব নূরুল হক জরিনা ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন ও ‘নৈতিকতা সচেতনতায়’ প্রজন্ম শিলক-কে ‘মানবাধিকার সনদ’ প্রদান করা হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x