যুক্তরাজ্য সফরে ডোনাল্ড ট্রাম্প, রানির সঙ্গে সাক্ষাৎ

মঙ্গলবার , ৪ জুন, ২০১৯ at ১০:৪৯ পূর্বাহ্ণ

তিনদিনের রাষ্ট্রীয় সফরে যুক্তরাজ্যে পৌঁছেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডেনাল্ড ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। লন্ডনের স্ট্যান্সটেড বিমানবন্দরে সোমবার সকালে তাদেরকে নিয়ে অবতরণ করেছে এয়ার ফোর্স ওয়ান। যুক্তরাজ্যে এটিই ট্রাম্পের প্রথম সফর। ট্রাম্প ও মেলানিয়াকে স্বাগত জানিয়েছেন যু্‌ক্তরাজ্যে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত উডি জনসন এবং ব্রিটিশ পররাষ্ট্রন্ত্রী জেরেমি হান্ট। রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথও এরই মধ্যে বাকিংহাম প্যালেসে ট্রাম্প দম্পতিকে স্বাগত জানিয়েছেন। মধ্যদুপুরের পরপরই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এবং মেলানিয়াকে বহনকারী হেলিকপ্টার বাকিংহাম প্যালেসে নামলে প্রাসাদের বাইরে লোকজনের ভিড় জমে যায়। সফরকালে ব্রিটিশ রাজপরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করা ছাড়াও বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে’র সঙ্গে জলবায়ু পরিবর্তন এবং হুয়াওয়ের বিষয়টি নিয়ে বৈঠক করবেন বলে মনে করা হচ্ছে। ট্রাম্প ৫ জুন পর্যন্ত যুক্তরাজ্য সফর করবেন। রানি এলিজাবেথ এবং প্রিন্স চার্লসের সঙ্গে সাক্ষাতের পর বাকিংহাম প্যালেসে ভোজের পাশাপাশি ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবিতেও যাবেন তিনি। খবর বিডিনিউজের।
যুক্তরাজ্য সফরের আগেই ট্রাম্প সেখানকার জটিল ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া নিয়ে নিজের মত জানিয়েছিলেন এবং দেশটির মাটিতে পা দেওয়ার আগে তিনি লন্ডনের মেয়র সাদিক খানের কড়া সমালোচনাও করেছেন। অতীতে ট্রাম্পের সঙ্গে সংঘাতে জড়িয়েছিলেন সাদিক খান। এবার ট্রাম্পের সফরের আগেও সাদিক খান এর বিরোধিতা করে তাকে লাল গালিচা স্বাগতম না জানাতে বলেছিলেন। জবাবে ট্রাম্প একটি টুইটে সাদিক খানকে এক চরম ব্যর্থ মানুষ বলে মন্তব্য করেন এবং বলেন, তার দিকে মনোযোগ না দিয়ে সাদিকের উচিত লন্ডনের অপরাধ দমনে মনযোগী হওয়া। ট্রাম্পের সফরকালে লন্ডন, মানচেস্টার, বেলফাস্ট এবং বার্মিংহামসহ যুক্তরাজ্যের কয়েকটি শহরে বিক্ষোভের পরিকল্পনা রয়েছে। মঙ্গলবার ট্রাফালগার স্কয়ারে সকাল ১১ টার দিকে এ বিক্ষোভ শুরুর পরিকল্পনা করেছেন আয়োজকরা। ওদিকে, ট্রাম্প বিদায়ী ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে’র প্রশংসা করলেও তার সঙ্গে বৈঠককালে দুই নেতার মধ্যে মতের অমিল দেখা দিতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ট্রাম্প-মে আলোচনা শুরু হবে মঙ্গলবার (আজ)। টেরিজা মে জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয়টি নিয়ে কথা বলবেন। ব্রিটিশ সরকারের এক মুখপাত্র সোমবার বলেছেন, ২০১৭ সালের প্যারিস জলবায়ু চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সরে আসার সিদ্ধান্তে যুক্তরাজ্য হতাশ। জলবায়ুর বিষয়টি ছাড়াও চীনা টেলিকম জায়ান্ট হুয়াওয়ে নিয়ে দু’নেতা আলোচনা করবেন। যুক্তরাষ্ট্র নিরাপত্তাজনিত কারণে এ কোম্পানিটিকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে। কিন্তু যুক্তরাজ্য ফাইভজি নেটওয়ার্কের জন্য এ কোম্পানিকে পন্য সরবরাহের অনুমতি দিতে পারে।

x