মুক্তিযুদ্ধের কথা পরবর্তী প্রজন্মের কাছে দলিল হয়ে থাকবে

প্রকাশনা অনুষ্ঠানে ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ

সোমবার , ২ ডিসেম্বর, ২০১৯ at ৯:২৫ পূর্বাহ্ণ
13

সাবেক মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ১৯৭১ সালের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে আমি ও বদিউল আলম সহযোদ্ধা ছিলাম। একই সুইসাইড মিশন নিয়ে আমরা আসকারদীঘির পাড়ের একটি দোতলা বাড়িতে ঘাঁটি করি। কিন্তু অপারেশনের পূর্বে পাক বাহিনী পুরো বাড়ি ঘেরাও করে ফেলে। গতকাল রোববার চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের আবদুল খালেক মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধা বদিউল আলম রচিত ‘আত্মকথা’ গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠান হয়। সেখানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, সেদিন অন্য সহযোদ্ধারা দ্রুত সরে পড়লেও আমি ও বদিউল আলম ওই বাড়িতে আটকা পড়ে যাই। পরে তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্তে ভেন্টিলেটারের ফাঁক দিয়ে পার্শ্ববর্তী বড় নালায় ঝাঁপ দিই। এতে আমার পা আঘাতপ্রাপ্ত হয়। স্থানীয় পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের সহায়তায় সেদিন আল্লাহপাক আমাদের নতুন জীবন দেন। মুক্তিযুদ্ধের এসব কথা পরবর্তী প্রজন্মের কাছে দলিল হয়ে থাকবে। মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন জাতীয় অধ্যাপক ড. মাহবুবুল হক। তিনি বলেন, এ বই আমি পড়েছি। তিনি খুবই সাবলীলভাবে মুক্তিযুদ্ধের কথা বলেছেন। একটি বিষয় আমাকে আন্দোলিত করেছে। তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের সাহায্যকারী সাত কোটি মুক্তিপাগল মানুষের সহায়তার কথা গভীর শ্রদ্ধায় স্মরণ করেছেন। আরো বক্তব্য দেন মুক্তিযোদ্ধা রেজাউল করিম, নঈম উদ্দিন চৌধুরী, অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন বাবুল, আবুল মনসুর, সিএনসি জাহাঙ্গীর, আজিজুল আলম নেভাল কমান্ডো, মুহাম্মদ ইউনুস, নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলতাফ হোসেন বাচ্চু, চসিক প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x