‘মঙ্গলের শহর’ বানাচ্ছে দুবাই

শনিবার , ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ at ৬:১৩ পূর্বাহ্ণ
458

মহাকাশ বিজ্ঞান নিয়ে গবেষণায় মার্কিন সংস্থা নাসা যেখানে পৌঁছেছে সেখানে পৌঁছানোর কল্পনাও হয়তো এই মুহূর্তে অন্য কেউ করতে পারবে না। কিন্তু আধুনিক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে বরাবরই কৌতূহলী সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই এবার একটি বিষয়ে নাসাকে টেক্কা দিতে চাইছে। আর তা হচ্ছে ‘মঙ্গলের শহর’। মঙ্গল গ্রহ নিয়ে মানুষের কৌতূহলের শেষ নেই। এই গ্রহে যদি মানুষ বাস করতে পারত, সেখানকার শহরগুলোতে থাকার অভিজ্ঞতা কেমন হতো, তা হাতেকলমে মানুষকে দেখাতে চাইছে দুবাই। আর এর সরাসরি তত্ত্বাবধানে থাকবেন আমিরাতের রাষ্ট্রপ্রধান নিজেই। মাত্র ২০১৪ সালে ‘সংযুক্ত আরব আমিরাত মহাকাশ সংস্থা’ গঠন করা হয়েছে। পরের বছর স্থাপন করা হয় মোহাম্মদ বিন রশিদ স্পেস সেন্টার। এটুকু সময়ের মধ্যেই এই স্পেস সেন্টার দেশে তৈরি দুটি স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করেছে। তবে এখানেই সন্তুষ্ট না থেকে দুবাই নজর দিয়েছে লাল গ্রহ মঙ্গলের দিকে। ২০২০ সাল নাগাদ মঙ্গলে যান পাঠানোর পরিকল্পনা নিয়েছে তারা। আর ভবিষ্যতে সেখানে মানব বসতি স্থাপনের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে।

কেমন হবে মঙ্গলে সেই মানব বসতি? কেমন হবে সেই শহরগুলো? এসব প্রশ্নের জবাব হাতে কলমে দিতে মরুভূমির বুকে দুবাই কর্তৃপক্ষ স্থাপন করতে যাচ্ছে মঙ্গল গ্রহের কল্পিত সেই শহরের এক ‘সিমুলেশন’। এর নাম দেয়া হবে ‘মার্স সায়েন্স সিটি’। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ১ কোটি ৩৬ লাখ ডলার। প্রায় ২০ লাখ বর্গফুট এলাকা জুড়ে হবে এই মঙ্গলের শহর। শহরের স্থাপনাগুলো তৈরি করা হবে থ্রিডি প্রিন্টার ব্যবহার করে। এই শহরটি শূন্য থেকে অনেকটা সারি সারি গম্ভুজের মতো মনে হবে। নাসার বিজ্ঞানীরাও মঙ্গলের শহরের এ জাতীয় ‘দালানকোটা’ই কল্পনা করেছেন।

x