ভিডিও মুছে দিতে পারে এআই

বুধবার , ১৮ মার্চ, ২০২০ at ১১:০২ পূর্বাহ্ণ
56

‘অটোমেটেড টেকডাউন সফটওয়্যারের’ কারণে ইউটিউব, টুইটার, ফেইসবুক থেকে ভুলবশত ভিডিও মুছে যেতে পারে। বিষয়টি নিয়ে আগাম সতর্কবার্তা জানিয়েছে ইউটিউব, ফেইসবুক এবং টুইটার। খবর বিডিনিউজের।
করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে বাসা থেকে কাজ করতে হচ্ছে প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রযুক্তিকর্মীদের। এ সময়টিতে সাইটের নীতিমালা মেনে ভিডিও আপলোড হচ্ছে কিনা, সে বিষয়টি নজরে রাখার ভার পড়েছে স্বয়ংক্রিয় ওই সফটওয়্যারের উপর। ফলে, চাইলেও আগের মতো দ্রুত ভুল শোধরানোর সুযোগটিও থাকছে না প্রতিষ্ঠানগুলোর হাতে।
এ প্রসঙ্গে এক ব্লগ পোস্টে গুগল জানিয়েছে, অফিস থেকে কর্মী কমাতে গিয়ে ইউটিউব এবং অন্যান্য ব্যবসা বিভাগগুলোকে সাময়িকভাবে সন্দেহজনক কনটেন্টের ব্যাপারে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি ও স্বয়ংক্রিয় টুলসের উপর নির্ভর করতে হচ্ছে। এ ধরনের সফটওয়্যার সবসময় মানুষের মতো নির্ভুল সিদ্ধান্ত জানাতে পারে না, ফলে ভুল হওয়ার শঙ্কা রয়েছে। ভুলের কারণে এ ধরনের সিদ্ধান্তের বিপক্ষে যে আপিলগুলো আসবে, সেগুলোর সিদ্ধান্ত নিতে সময় লাগবে।
এদিকে, সব কনটেন্ট পর্যালোচককে বেতন দিয়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়ার অংশ হিসেবে এ সপ্তাহে চুক্তিভিত্তিক সেবাদাতাদের সঙ্গে কাজ করবে বলে জানিয়েছে ফেসবুক। গত সপ্তাহে নীতিমালা প্রয়োগকারীদের কাজ করার কথা বলে কড়া সমালোচনার মুখোমুখি হয়েছিল প্রতিষ্ঠানটি। নীতিমালা প্রয়োগকারীদেরকে কাজ করার কথা বলার পেছনে ফেসবুকের অবশ্য একটি গুরুতর কারণও ছিল। দূর থেকে কনটেন্টে নজর রাখার মতো নিরাপদ প্রযুক্তি তেমন একটা নেই প্রতিষ্ঠানটির হাতে।
ফেসবুক বলছে, ‘আমাদের হয়তো সাড়া দিতে সময় বেশি লাগতে পারে এবং ফলাফল হিসেবে আরও ভুল হবে।’ টুইটারও একই পদক্ষেপ নিয়েছে। শুধু এ সময়টিতে কোনো কনটেন্টের কারণে ব্যবহারকারীকে নিষিদ্ধ করা হবে না। নির্ভুল সিদ্ধান্ত না-ও হতে পারে, সে শঙ্কা থেকেই নিষিদ্ধ না করার সিদ্ধান্তটি নেওয়া হয়েছে। করোনাভাইরাস বিস্তার রোধে কর্মীদেরকে বাসা থেকে কাজ করতে বলেছে এ তিন সিলিকন ভ্যালি জায়ান্ট।