ভালোবাসাই দাম্পত্য জীবনকে করে তুলতে পারে নির্ভার

শিল্পকলায় কালপুরুষের তিন দিনব্যাপী নাট্যোৎসব শুরু আজ

প্রবীর বড়ুয়া

শুক্রবার , ২৮ জুন, ২০১৯ at ৬:৪৫ পূর্বাহ্ণ

শহুরে বা নাগরিক জীবন এত দ্রুত বদলে যাচ্ছে যে চাহিদার সঙ্গে এক অসম প্রতিযোগিতায় কোন বিষয়টি অগ্রাধিকার পাবে তা ঠিক বুঝে উঠতে পারছে না মানুষ। ভোগবাদ বা কনজ্যুমারিজম বেশ দাপটে জায়গা করে বসেছে এই শহর বা নগরকেন্দ্রিক জীবনে। মনটাকে, ভাবনাটাকেও ঠিক রাখা যাচ্ছে না। তার একটা প্রচণ্ড প্রভাব পড়েছে ঘরে বাইরে আর সংসারে। সম্ভবত খুব বেশি পড়েছে দাম্পত্য জীবনে যেখানে একটা সমতা মেনে চলা খুবই জরুরি। কিন্তু একটু এদিক ওদিক হলেই সেটি ঝনঝন করে ভেঙে পড়ছে নির্দয়ভাবে। দাম্পত্য জীবনে ভালোবাসাকে বাঁচিয়ে রাখার দায় দুজনেরই। সম সময়ের প্রভাবে থাকবে সংকট, অপরিপূর্ণতার কষ্ট, প্রত্যাশার সঙ্গে প্রাপ্তির ঘাটতি, আকাঙ্খার ভেঙে ভেঙে পড়ার টুকরো টুকরো স্মৃতি, ইচ্ছে অপূর্ণতার তীব্র দহন, সাধ্যাতীতের সঙ্গে সাধ্যের সীমা ও তার দ্বন্দ্ব প্রতিনিয়ত। এ সবই একটা দাম্পত্য জীবনে আষ্টেপৃষ্ঠে থাকবেই। এসবকে নিয়েই তো দাম্পত্য কিন্তু পরস্পরকে বোঝার, অনুভবের, সম্মান ও শ্রদ্ধার এবং একে অপরের বন্ধু হয়ে ওঠার একটা শক্ত ভিত্তি যদি শুধু ভালোবাসাকে পুঁজি করে গড়ে তোলা যায় তাহলে দুঃখ ও সংকট মোচনের একটা পথ হয়তো বেরিয়ে আসতে পারে যেখানে ভাঙনকে রোধ করা সম্ভব। আর তখনই দাম্পত্য জীবন স্বস্তি ও প্রশান্তি নিয়ে খোলা হাওয়ার মত নির্ভার হয়ে ওঠে। কালপুরুষ নাট্য সম্প্রদায়ের পরিবেশনায় শান্তনু বিশ্বাসের রচনা ও নির্দেশনায় ‘নির্ভার’ নাটকের এটা হলো সংক্ষিপ্ত কাহিনী। জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে কালপুরুষ নাট্য সম্প্রদায় আয়োজিত তিন দিনব্যাপী ‘বার্জার কালপুরুষ নাট্যোৎসব ২০১৯’-এর প্রথমদিন আজ মিলনায়তনে সন্ধ্যা ৭টায় পরিবেশিত হবে নাটকটি।
‘আলোর মতো ছড়িয়ে পড়ো’ এই প্রত্যয় ও শিরোনামে এ নাট্যোৎসবে প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টায় মুক্ত মঞ্চে থাকবে অনুষ্ঠান এবং মিলনায়তনে নাটক পরিবেশিত হবে সন্ধ্যা ৭টায়।
প্রথম দিন মিলনায়তনে ‘নির্ভার’ নাটকের পরিবেশনার পাশাপাশি মুক্তমঞ্চে দলীয় সংগীত পরিবেশন করবে অভ্যুদয় সঙ্গীত অঙ্গন, আবৃত্তি পরিবেশন করবেন রাশেদ হাসান, দলীয় নৃত্য পরিবেশনায় থাকবে ওড়িশি এন্ড টেগর ডান্স মুভমেন্ট সেন্টার।
দ্বিতীয় দিন আগামীকাল শনিবার (২৯ জুন) মুক্তমঞ্চে গণসঙ্গীত পরিবেশন করবে নরেন আবৃত্তি একাডেমি, আবৃত্তি পরিবেশন করবে সন্‌জীব বড়ুয়া, সাবিরা সুলতানা বীনা, হাসান জাহাঙ্গীর, মোজাহিদুল ইসলাম ও শ্রাবণী দাশ গুপ্তা, দলীয় নৃত্য পরিবেশনায় থাকবে স্কুল অব অরিয়েন্টাল ডান্স। মিলনায়তনে শান্তনু বিশ্বাসের অনুবাদে ও শুভ্রা বিশ্বাসের নির্দেশনায় পরিবেশিত হবে নাটক ‘নাট্যত্রয়ী’।
তৃতীয় দিন রবিবার (৩০ জুন) মুক্তমঞ্চে দলীয় সঙ্গীত পরিবেশন করবে রক্তকরবী, আবৃত্তি পরিবেশন করবেন দুলাল দাশ গুপ্ত, মিলি চৌধুরী, দলীয় নৃত্য পরিবেশনায় থাকবে মুভমেন্ট, লোক সঙ্গীত পরিবেশন করবেন ডা. দীপংকর দে। মিলনায়তনে পরিবেশিত হবে বাদল সরকারের রচনা ও শুভ্রা বিশ্বাসের নির্দেশনায় নাটক ’যদি আর একবার’। নাটক তিনটিতে অভিনয়ে অংশ নেবেন শান্তনু বিশ্বাস, শুভ্রা বিশ্বাস, সনজীব বড়ুয়া, সাহিদ উদ্দিন আহমেদ, বাহাউদ্দিন মিরণ, মিশফাক রাসেল, প্রবীর পাল, মিতাশা মাহরীন, ফারজানা মুনমুন, রাকিবুল কামাল ও করবী দাশ। আবহ সংগীতে থাকবেন দিদারুল আলম, আলোক পরিকল্পনায় শান্তনু বিশ্বাস, মিশফাক রাসেল ও মাহমুদ। মঞ্চ, সেট ও শিল্প পরিকল্পনায় পীযুষ দস্তিদার।

x