ভাতা নিয়ে বাকবিতণ্ডায় টেকনাফে মহিলা মেম্বার আহত

টেকনাফ প্রতিনিধি

শনিবার , ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ at ১০:৩৬ অপরাহ্ণ

কক্সবাজারের টেকনাফ বাহারছড়ার শিলখালীতে স্থানীয় মহিলা মেম্বার রহিমা আক্তার রুজির উপর হামলার অভিযোগ উঠেছে।

আজ শনিবার (৭ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে স্থানীয় সাইক্লোন সেল্টারে ইউএনডিপি কর্তৃক পরিচালিত মেডিয়েটর ফোরামের অনুষ্ঠান শেষে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এতে রহিমা আক্তার রুজি গুরুতর আহত হন।

টেকনাফ বাহারছড়া ইউনিয়নের ৭, ৮, ৯নং ওয়ার্ডের মহিলা মেম্বার রুজির পরিবারের দাবি, টেকনাফ উপজেলা পরিষদের ১ আসনের সদস্য, বাহারছড়া ইউনিয়নের মহিলা মেম্বার রহিমা আক্তার রুজি মেডিয়েটর ফোরামের ঐ অনুষ্ঠানে যোগদান করেন। অনুষ্ঠান শেষে ভাতা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে রুজির সাথে বাহারছড়া ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি আজিজুল্লাহর বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে আজিজুল্লা চেয়ার নিয়ে রুজির উপর ছুঁড়ে মারেন। এতে রুজির মাথায় আঘাত লেগে অজ্ঞান হয়ে তিনি মাটিতে লুটে পড়েন।

উপস্থিত লোকজন আহত রুজিকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করেন।

টেকনাফ বাহারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মৌলভী আজিজ জানান, ইউএনডিপি’র একটি অনুষ্ঠান শেষে মাত্র ৪০০ টাকার ভাতা নিয়ে দু’জনের মধ্যে ঝগড়া হয়।

বাহারছড়া ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি আজিজুল্লাহ বলেন, ‘ইউএনডিপি’র একটি অনুষ্ঠান শেষে ঐ অনুষ্ঠানের ভাতা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আমাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয় মাত্র।’

এ বিষয়ে ইউএনডিপি’র প্রতিনিধি মামুন জানান, অনুষ্ঠানটি ১০০ জনের উপস্থিতি নিয়ে আয়োজন করা হয়। ঐ অনুষ্ঠানের ১০০ জন উপস্থিতিকে ৪০০ টাকা করে অনুষ্ঠান ভাতা নির্ধারণ করা হয়েছিল। অনুষ্ঠান শেষে নির্ধারিত ভাতা প্রদানের সময় হিসাবের বাহিরে মহিলা মেম্বার রুজি ভাতা দাবি করে আজিজুল্লাহ’র সাথে অপ্রত্যাশিত ঘটনা ঘটান যা সত্যি দুঃখজনক।’

এদিকে স্থানীয়রা জানিয়েছে সাবেক শিবির ক্যাডার বহু মামলার আসামি বর্তমান কমিউনিটি পুলিশিং সভাপতি আজিজুল্লাহ পরিকল্পিতভাবে আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর রহিমের স্ত্রী ইউপি সদস্য রহিমা আক্তার রুজির উপর এ হামলা চালায়।

x