বিশ ঘণ্টা পর যাত্রা করছে ছিনতাইয়ের কবলে পড়া ময়ুরপঙ্খী

নিহত ছিনতাইকারী নারায়ণগঞ্জের পলাশ

আজাদী অনলাইন

সোমবার , ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ at ২:২১ অপরাহ্ণ

নির্ধারিত সময়ের প্রায় বিশ ঘন্টা পর ছিনতাইয়ের কবলে পড়া বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইটটি সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ের পথে যাত্রার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানিয়েছেন দৈনিক আজাদীর চিফ রিপোর্টার হাসান আকবর। আটকে পড়া যাত্রীদের বোর্ডিং শুরু হয়েছে। কিছুক্ষণের মধ্যে দুবাইয়ের উদ্দেশে রওনা হবে বাংলাদেশ বিমানের ময়ুরপঙ্খী ফ্লাইটটি।

এদিকে অনলাইন বার্তা সংস্থা বিডিনিউজটোয়েন্টিফোর জানায়, বিমান ছিনতাই করতে গিয়ে যে যুবক কমান্ডো অভিযানে নিহত হয়েছেন, তার আঙুলের ছাপ ক্রিমিনাল ডাটাবেইজে থাকা এক অপরাধীর সঙ্গে মিলে গেছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান আজ সোমবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বলেন, তাদের ডাটাবেইজের তথ্য অনুযায়ী ওই যুবকের নাম মো. পলাশ আহমেদ। নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ের দুধঘাটা এলাকার পিয়ার জাহান সরদারের ছেলে তিনি।

রবিবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কমান্ডো অভিযানের পর সেনা ও বিমান বাহিনীর কর্মকর্তারা শুধু বলেছিলেন, নিহত ব্যক্তির নাম ‘মাহাদী’, তার বয়স ২৬/২৭ বছর।

তার বিস্তারিত পরিচয় বা তার উদ্দেশ্য সম্পর্কে কোনো তথ্য সে সময় তারা জানাতে পারেননি। তার কাছে যে অস্ত্রটি পাওয়া গেছে সেটি একটি ‘খেলনা পিস্তল’ বলে চট্টগ্রামের পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ মাহবুবর রহমান রবিবার রাতে জানিয়েছিলেন।

বিমানের প্যাসেঞ্জার লিস্টের বরাত দিয়ে র‌্যাব বলছে, নিহত ওই যুবক ঢাকার শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে বিমানে চড়েন চট্টগ্রামে যাওয়ার জন্য। চট্টগ্রাম হয়ে দুবাই যাওয়ার কথা ছিল বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বোয়িং-৭৩৭ উড়োজাহাজটির।

মুফতি মাহমুদ খান বলছেন, প্যাসেঞ্জার লিস্টে ওই যাত্রীর নাম ছিল AHMED/MD POLASH, সিট নম্বর 17A।

তবে ঠিক কী ধরনের অপরাধের জন্য পলাশ আহমেদের নাম র‌্যাবের ক্রিমিনাল ডাটাবেইজে যুক্ত করা হয়েছিল সেই বিষয়ে কোনো তথ্য দেননি এ বাহিনীর আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক।

x