বিভাগীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা উদ্বোধন

‘শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞানমনস্ক হয়ে গড়ে উঠতে হবে’

শুক্রবার , ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ at ৪:৫৩ পূর্বাহ্ণ
112

চট্টগ্রাম বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মো. নুরুল আলম নিজামী বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৮ সালে তার নির্বাচনী ইশতেহারে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন। ২০০৯ সালে তিনি সরকার গঠনের পর ২০২১ সালের মধ্যে এ দেশকে পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল বাংলাদেশে বিনির্মাণের লক্ষ্যে আইসিটি কার্যক্রমকে আরও ত্বরান্বিত করতে স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘ মেয়াদী কর্মসূচি নিয়ে তা বাস্তবায়ন করে চলেছেন। বর্তমানে আইটি প্রযুক্তির মাধ্যমে বাংলাদেশ অনেক দূর এগিয়ে গেছে। প্রযুক্তিগত উন্নয়নের ফলে দেশ আজ অনেক ক্ষেত্রে সমৃদ্ধ। সরকারের এ যাত্রা অব্যাহত রাখতে হলে বিজ্ঞান ভিত্তিক মানসম্মত পড়ালেখা করে ভালো ফলাফল অর্জনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞানমনস্ক হয়ে গড়ে উঠতে হবে। বিজ্ঞান ভিত্তিক গবেষণায় আরো বেশি মনোনিবেশ ঘটাতে হবে। তাহলে সরকারের ভিশন ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ সম্ভব। তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার সেন্ট প্লাসিডস স্কুল এন্ড কলেজে অনুষ্ঠিত দু’দিন ব্যাপী ৫ম বিভাগীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার অফিস এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি উন্নয়ন ট্রাস্ট, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এ মেলার আয়োজন করে।

তিনি বলেন, সরকারের রূপকল্প ২০২১ এবং ২০৪১ বাস্তবায়ন করে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অগ্রযাত্রাকে সুদৃঢ় করতে এ মেলার আয়োজন করা হয়েছে। এর মাধ্যমে দেশের ভবিষ্যত কর্ণধার শিশুকিশোর, তরুণ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে বিজ্ঞান মনস্কতা সৃষ্টি, প্রযুক্তির বিকাশ এবং উদ্ভাবনী কাজে উদ্দীপনা সৃষ্টি হবে। এ মেলার মাধ্যমে চট্টগ্রামের শিক্ষার্থী ও তরুণতরুণীরা আরো বিজ্ঞানমনস্ক হবে। বাংলাদেশের আর্থসামাজিক অবস্থার উন্নয়নে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ে উদ্ভাবনমূলক কাজে শিশুকিশোর ও তরুণদের মধ্যে আগ্রহ সৃষ্টি করা প্রয়োজন। দেশীয় সম্পদের সাহায্যে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ভিত্তিক আমদানির বিকল্প ব্যবস্থা গড়ে তোলার ব্যাপারে তরুণ উদ্ভাবকদের সহায়তা ও উৎসাহ প্রদানের মাধ্যমে বিজ্ঞান মনস্ক জাতি গঠন সম্ভব। বিজ্ঞানকে বাদ দিয়ে কোন কিছু সম্ভব নয়।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আমিরুল কায়ছারের সভাপতিত্বে ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অভিষেক দাশের সঞ্চালনায় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অধ্যাপক চৌধুরী মঞ্জুরুল হক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিচালক অধ্যাপক প্রদীপ চক্রবর্তী ও সেন্ট প্লাসিডস স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ব্রাদার প্রদীপ লুইস রোজারীও। অনুষ্ঠানের শুরুতে বেলুন উড়িয়ে দু’দিনব্যাপী ৫ম বিভাগীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন করেন। সভা শেষে প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ মেলার স্টল পরিদর্শন করেন। মেলায় আনুমানিক ৮০টি স্টলে সরকারিবেসরকারি বিভিন্ন স্কুল, মাদ্রাসা, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী এবং বিজ্ঞান ক্লাব বা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের সদস্যগণ তাদের উদ্ভাবিত প্রকল্প প্রদর্শন করবে। জুনিয়র, সিনিয়র ও বিশেষ এ তিনটি ক্যাটাগরিতে চট্টগ্রাম বিভাগাধীন ১১টি জেলা ও মহানগরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ বিজ্ঞান ক্লাবের স্টল রয়েছে মেলায়। স্কুল পর্যায়ে অর্থাৎ জুনিয়র গ্রুপে ১১টি জেলা থেকে প্রতিযোগিতার মাধ্যমে বিজয়ী হওয়া ১১টি প্রতিষ্ঠানের ১২টি দলের ১২টি প্রজেক্ট ও চট্টগ্রাম মহানগরের ৯টি প্রতিষ্ঠানের ২৪টি দলের ২৪টি প্রজেক্ট মেলায় প্রদর্শিত হচ্ছে।

একইভাবে সিনিয়র ক্যাটাগরিতে অর্থাৎ কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে ১১টি জেলা থেকে বিজয়ী ১২টি দল ১২টি প্রজেক্ট এবং মহানগরের ৫টি প্রতিষ্ঠানের ১০টি দল তাদের ১০টি প্রজেক্ট প্রদর্শন করছে। এছাড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বাইরে বিশেষ ক্যাটাগরিতে ১৫টি প্রতিষ্ঠানের ৪৪ জন উদ্ভাবকের ১৮টি দলের ১৮টি প্রজেক্ট এ মেলায় প্রদর্শিত হচ্ছে।

মেলায় প্রজেক্ট প্রদর্শনীর পাশাপাশি বিজ্ঞান বিষয়ক কুইজ, উপস্থিত বক্তৃতা ও বির্তক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বিভাগের ১১টি জেলার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলায় সিনিয়র ও জুনিয়র পর্যায়ে এসব প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পাশাপাশি মহানগরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীরাও এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছে। মেলার শেষ দিন আজ শুক্রবার বিকেল ৫টায় বিভাগীয় পর্যায়ে প্রজেক্ট প্রদর্শন, বিজ্ঞান বিষয়ক কুইজ, উপস্থিত বক্তৃতা ও বির্তক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হবে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x