বাংলাদেশের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানালেন ইনজামাম

বুধবার , ২২ জানুয়ারি, ২০২০ at ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ
38

দীর্ঘ জল্পনাকল্পনা শেষে পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। নিজেদের মাটিতে নিয়মিত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আয়োজনে মরিয়া পাকিস্তানের জন্য এটা অনেক বড় সুসংবাদ। আর এজন্য বাংলাদেশের প্রতি পাকিস্তানের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা উচিত বলে মনে করেন দেশটির সাবেক অধিনায়ক ইনজামাম-উল-হক। নিজের ইউটিউব চ্যানেল ‘দ্য ম্যাচ উইনার’ এ প্রকাশিত এক ভিডিওতে গত সোমবার পাকিস্তান সফরে রাজি হওয়ায় বাংলাদেশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বার্তা দিয়েছেন ইনজামাম। শুধু তাই না, তিনি দাবি করেছেন পাকিস্তানিদের ক্রিকেটের প্রতি ভালোবাসার কারণে বাংলাদেশ দল সফরটা দারুণ উপভোগ করবে।
ইনজামাম বলেন, পাকিস্তানে আসার জন্য বাংলাদেশের প্রতি আমাদের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা উচিত। যদিও আমি মনে করি তারা যদি ধাপে ধাপে না এসে একবারেই পুরো সিরিজটা খেলত তাহলে সেটা আরও ভালো হতো। তবে এটা নিশ্চিত যে পাকিস্তানের ক্রিকেট পাগল মানুষের সামনে ক্রিকেট খেলাটা তারা উপভোগ করবে। এদিকে ওই ভিডিওতে বাংলাদেশ সিরিজের পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি দল থেকে বাদ পড়া দুই পেসার মোহাম্মদ আমির ও ওয়াহাব রিয়াজকে নিয়েও কথা বলেছেন ইনজামাম। সাবেক এই প্রধান নির্বাচকের মতে, এই দুই অভিজ্ঞ বোলারকে বাদ দেওয়া সিদ্ধান্তটা ভুল হয়েছে। কারণ সংক্ষিপ্ত পরিসরের ক্রিকেটে এই দুজনের অভিজ্ঞতা আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কাজে লাগাতে পারত পাকিস্তান।
গত ১৪ জানুয়ারি বিসিবি ও পিসিবি এক আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তিন ধাপে পাকিস্তান সফরে যাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। যদিও শুরুতে সংক্ষিপ্ত সফরের ব্যাপারে রাজি হয়েছিল বিসিবি। সেসময় শুধু টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার ব্যাপারে রাজি হলেও শেষ পর্যন্ত তিন ধাপের প্রথমটিতে তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। এরপর দুই ধাপে দুটি টেস্ট ও একটি ওয়ানডে খেলার ব্যাপারে সমঝোতা হয়েছে। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ২৪ থেকে ২৭ জানুয়ারি ৩ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ এবং পাকিস্তান লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে। এরপর পরের ধাপে আগামী ৭ থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি রাওয়ালপিন্ডির মাঠে গড়াবে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচটি। আর তৃতীয় ধাপে আগামী এপ্রিলে ফের পাকিস্তান সফরে যাবে টাইগাররা। আর সেবার করাচি ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে সিরিজের বাকি টেস্ট ও একমাত্র ওয়ানডে ম্যাচটি খেলতে যাবে টাইগাররা। আর এই ম্যাচের মধ্য দিয়ে শেষ হবে বাংলাদেশ দলের ঐতিহাসিক পাকিস্তান সফর।