বঙ্গবন্ধু বাঙালির আত্মজাগরণের শক্তি

স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের আলোচনা সভায় বক্তারা

বৃহস্পতিবার , ১১ জানুয়ারি, ২০১৮ at ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ
140

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদ বলেছেন, ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তানি কারাগার থেকে মুক্ত হয়ে যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশে ফিরে আসার মধ্য দিয়ে স্বাধীনতা অর্থবহ হয়েছিল। বঙ্গবন্ধুকে ফিরে পেয়ে মানুষ দেশ গড়ার কাজে নিজেদের আত্মনিয়োগ করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন জাতির জন্য ছিল একটি বড় প্রেরণা। এদিনটি আমাদের দেশ গড়ার লক্ষ্যে ঝাঁপিয়ে পড়ার প্রেরণা যোগায়। তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা আজ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছেন।

মোছলেম উদ্দিন আহমদ বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে বঙ্গবন্ধুর কর্মময় জীবন ও রাজনীতি থেকে শিক্ষা নিয়ে দলের সর্বস্তরে দৃঢ় ঐক্য গড়ে তোলার আহবান জানান।

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান বলেন, ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি প্রমাণিত হয়েছিল বঙ্গবন্ধুই ছিলেন জাতির ঐক্যের প্রতীক। বঙ্গবন্ধু ফিরে না আসলে দেশ ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হত। এই দিনে বঙ্গবন্ধুর আগমনে বদলে গিয়েছিল সবকিছু। মফিজুর রহমান বলেন, এ দিনটি জাতিকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য চিরকাল প্রেরণা যোগাবে। গতকাল ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে এক আলোচনা সভা সংগঠনের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে ও প্রচার সম্পাদক নুরুল আবছার চৌধুরী’র সঞ্চালনায় সংগঠনের আন্দকিল্লাস্থ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বক্তব্য রাখেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, সহসভাপতি মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, আবু সাঈদ, আইন সম্পাদক এড: মির্জা কছির উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক এড: জহির উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ দাশ, খোরশেদ আলম, আলহাজ্ব আবু জাফর, বোরহান উদ্দিন এমরান, শাহনেওয়াজ হায়দার শাহীন, বন সম্পাদক এড: মুজিবুল হক, ধর্ম সম্পাদক আবদুল হান্নান চৌধুরী মঞ্জু, উপ দপ্তর সম্পাদক বিজয় কুমার বড়ুয়া, পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আ ক ম শামসুজ্জামান, বোয়ালখালী উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এস এম জহিরুল আলম জাহাঙ্গীর, চন্দনাইশ উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আবু আহমদ জুনু, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সদস্য চেয়ারম্যান নাছির আহমদ, মো: মুছা, সৈয়দুল মোস্তফা চৌধুরী রাজু, এস এম ছালেহ, মাহবুবুর রহমান সিবলী, আবু সৈয়দ, এম এন ইসলাম, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা শ্রমিক লীগ সভাপতি নুরুল হাকিম, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি পৌর মেয়র মোহাম্মদ জোবায়ের, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক শামীমা হারুন লুবনা, কাজী শারমিন সুমী, সঞ্চিতা বড়ুয়া, জীবন আরা বেগম, জান্নাতুল ফেরদৌস জান্নাত, এড: নিলুফার জাহান, শাহিন আক্তার, নিলুফার জাহান বেবী, দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি এস এম বোরহান উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মো: আবু তাহের প্রমুখ।

বঙ্গবন্ধু সংস্কৃতিক জোট ॥ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র প্রফেসর নিছার উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু বলেছেন, বঙ্গবন্ধু বাঙালির আত্মজাগরণের শক্তি। ইতিহাস থেকে তাঁকে যারা মুছে ফেলতে চেয়েছিলো তারাই ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে নিক্ষিপ্ত হয়েছে। গতকাল ১০ জানুয়ারি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট চট্টগ্রাম জেলার উদ্যোগে নগরীর পাথরঘাটা ইকবাল রোডস্থ পিপি স্কোয়ার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি একথা বলেন। তিনি এমনই একজন মহামানব বাঙালি জাতিসত্তাকে বিশ্বে উপস্থাপিত করে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার ঠাঁই দিয়েছেন। বিশেষ অতিথির ভাষণে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ২৭নং দক্ষিণ আগ্রাবাদ ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ্ব এইচ এম সোহেল বলেন, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার প্রধান অবলম্বন। ১৯৭১ সালের আগে বাঙালির তিন হাজার বছরের ইতিহাসে আমরা স্বাধীন ছিলাম না। বাঙালির স্বাধীনতা এই প্রাপ্তির প্রদীপ শিখা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ৯নং পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক চসিক কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসিম বলেন, স্বাধীনতার ৪৬ বছরেও বাংলাদেশ শঙ্কামুক্ত নয়। নানা ধরনের চক্রান্তের জাল বোনা হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট চট্টগ্রাম জেলার সভাপতি অনুপ বিশ্বাসের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন সুমন দেবনাথ, লিটন রায় চৌধুরী, আবু সুফিয়ান, জসিম উদ্দিন মিঠুন, স্বাক্ষর দাশ, শাহনারা বেগম, রিংকু ভট্টাচার্য, মাসুদ উদ্দিন হামেদ নেওয়াজ, সজল দাশ, দিলীপ সেন গুপ্ত, দেবু বড়ুয়া, শ্রাবণী দে প্রমুখ। সভা শেষে শিশু কিশোর চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের ক্রেষ্ট ও সনদপত্র বিতরণ করা হয়।

ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয় ॥ ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ে গতকাল বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর ডা. মো. রায়হান ফারুক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন শিক্ষক সমিতি, কর্মকর্তা সমিতি ও কর্মচারী ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দ। বঙ্গবন্ধু ম্যুরালে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে প্রফেসর ডা. মো. রায়হান ফারুক কর্তৃক শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনের পর খাদ্য বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদ, মৎস্যবিজ্ঞান অনুষদ, মুক্তিযোদ্ধা এম.. হান্নান হলের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করা হয়।

চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগ ॥ স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে গতকাল দুপুরে চট্টগ্রাম কলেজের শহীদ মিনারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন শ্রদ্ধা নিবেদন করে চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ। এসময় তারা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বীরত্ব এবং বাঙালি জাতিকে মুক্তিদানের নানা বিষয় নিয়ে োগানে োগানে মুখরিত করে চট্টগ্রাম কলেজ ক্যাম্পাস। চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদুল করিম’র সভাপতিত্বে কলেজ ছাত্রলীগ নেতা জাবেদুল ইসলাম জিতু ও মোক্তার হোসেন রাজু’র যৌথ সঞ্চালনায় এসময় এক সংক্ষিপ্ত সভায় বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগ নেতা অভিমন্যু রায় সৌরভ, নাজমুল ইসলাম, আমিনুর রহমান রিফাত, শরফুল ইসলাম মাহী, খন্দকার নাইমুল আজম, আসাদুজ্জামান, কলিম উল্লাহ মাসুম। বক্তারা বলেন, হাজার বছর ধরে বাংলার ইতিহাসে অনেক মহানায়কের জন্ম হয়েছিল। কিন্তু কেউ বাংলার মুক্তিকামী জনতার স্বাধীনতা এনে দিতে পারেননি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালি জাতিসত্তাকে বুকে ধারণ করে ৪৭ এর দেশ বিভাগ পরবর্তী সময়ে দীর্ঘ ২৩ বছরের লড়াইসংগ্রামের মধ্য দিয়ে এনে দিয়েছিলেন ৭ কোটি বাঙালি জাতির লালিত স্বপ্ন বাংলার স্বাধীনতা।

আমরা রাসেল মহানগর ॥ বাঙালি জাতিকে পরাধীনতার শৃঙ্খলতার বিরুদ্ধে উজ্জ্বীবিত করে এ জাতিকে মুক্তিযুদ্ধের জন্য প্রস্তুত করার মাধ্যমে বাংলাদেশ এবং বঙ্গবন্ধু এক ও অভিন্ন সত্তায় পরিণত হয়েছেন। তাই এদেশের মানুষের কাছে বঙ্গবন্ধু চিরঞ্জীব। বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মধ্য দিয়ে স্বাধীনতার পূর্ণতা লাভ করে। বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের আলোচনা সভায় কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য সাবেক কমিশনার হাসিনা জাফর প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। জামালখানস্থ একটি হলে আমরা রাসেল পরিষদ চট্টগ্রাম মহানগর ও থানা ওয়ার্ডের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন আমরা রাসেল পরিষদ মহানগর আহবায়ক শাহেদুল আলম অপু। নগর যুগ্ম সম্পাদক জাহেদ হোসেন টিটুর পরিচালনায় এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন মহানগর আওয়ামীলীগের সদস্য সাইফুদ্দিন খালেদ বাহার। প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন ওমরগণি এমইএস বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ মোহসীন, মহানগর যুবলীগ নেতা হাজী নাছির উদ্দন, মহিদুল হক সুমন, মো. দুলাল আহম্মেদ, মো. আমানুল্লাহ আমান। আরো বক্তব্য রাখেন মো. তাওসিপ, মো. ইয়াকুব, মো. মোজাসের আলম, আরমান মিয়া, মো. শাকিল আহম্মেদ, মোহাম্মদ হোসেন, রাবসান ইরফান প্রমুখ ওয়ার্ড নেতৃবৃন্দ।

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব স্মৃতি পরিষদ ॥ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব স্মৃতি পরিষদ চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্রোগে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে এক আলোচনা সভা সংগঠনের সভাপতি আশীষ নন্দীর সভাপতিত্বে সংগঠন কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সভাপতি এহছানুল আজিম লিটনের সঞ্চালনায় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর।

বক্তব্য রাখেন আকবর হোসেন, আরহাজ্ব শহীদ উদ্দিন, মোঃ ফরিদ আহমেদ, অধ্যাপক মাহবুবুল ইসলাম, উজ্জ্বল চক্রবর্তী, সুজিত ঘোষ, মাকসুদুর রহমান, মর্জিনা আক্তার লুসি, মাসুক মুনিরী, এনামুল হক ও মোঃ ইমন প্রমুখ। খবর বিজ্ঞপ্তির।

x