ফ্রান্সের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক জেলে, অবশ্য পরে মুক্তি মিলেছে

স্পোর্টস ডেস্ক

রবিবার , ২৬ আগস্ট, ২০১৮ at ৯:২৮ পূর্বাহ্ণ
120

এতদিন ফ্রান্সের জনগণ বেশ গর্বের সঙ্গে তার নাম উচ্চারণ করতো। কিন্তু সেই নামের পাশেই লেগে গেলো পুলিশি মামলার ছাপ। হুগো লরিসের হাত ধরেই দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপের সোনালী শিরোপা উঁচিয়ে ধরে ফ্রান্স। তবে ৩১ বছর বয়সী এই ফরাসি তারকা এবার কিছুটা বিপাকেই পড়েছেন। গত শুক্রবার রাতে মদ্যপ অবস্থায় বেসামালভাবে গাড়ি চালানোর অপরাধে পশ্চিম লন্ডন পুলিশের হাতে ধরা পড়েন লরিস। প্রায় সাত ঘণ্টা আটক থাকার পর তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তবে তার নামে মামলা হয়েছে। ট্রাফিক আইন ভাঙার অপরাধে আদালতে যেতে হবে বিশ্বকাপজয়ী এই ফরাসি অধিনায়ককে। শুক্রবার রাত ২টা ২০ মিনিটে লন্ডনের রাস্তায় নিজের ব্যক্তিগত গাড়ি চালিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন লরিস। রাস্তায় অস্বাভাবিকভাবে গাড়ি চালাতে দেখে তাকে অনুসরণ করে কর্মরত পুলিশ। এক পর্যায়ে তাকে থামিয়ে দেওয়া হয় ও তার অ্যালকোহল পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষায় তার অতিরিক্ত মদ্যপের নমুনা পাওয়া যায়। ট্রাফিক আইন ভাঙার দায়ে লরিসকে আটক করে পশ্চিম লন্ডনের পুলিশ। শাস্তি স্বরূপ তাকে জেল হাজতে রাখা হয় সাত ঘণ্টার মতো। বর্তমানে জামিনে মুক্তি পেলেও দায়ের করা মামলার শুনানিতে আগামী মাসে আদালতে উপস্থিত থাকতে হবে তাকে।

বিশ্বকাপজয়ী ফ্রান্সের ফুটবল দলের এই অধিনায়কের অপরাধ প্রসঙ্গে মেট্রোপলিটন পুলিশের এক মুখপাত্র বলেন, হুগো লরিসের বিরুদ্ধে মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালানোর অভিযোগ আনা হয়েছে। আপাতত জামিনে মুক্ত থাকলেও তাকে আগামী ১১ সেপ্টেম্বর ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছে। এমন ঘটনায় লজ্জিত জানিয়ে ক্ষমা চেয়ে হুগো লরিস বলেন আমি মন থেকে আমার পরিবার, ক্লাব, সতীর্থ, ম্যানেজার এবং সব সমর্থকদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আমি আমার কৃতকর্মের পুরো দায় নিচ্ছি। ২০০৮ সালে ফ্রান্স জাতীয় দলের জার্সি গায়ে চাপানো লরিস এখন পর্যন্ত মোট ১০৪টি ম্যাচ খেলেছেন ফ্রান্সের হয়ে। ২০১২ সালে ইংলিশ ক্লাব টটেনহাম হটস্পারে যোগ দিয়ে ক্লাবের হয়ে এখন পর্যন্ত ২৫৬টি ম্যাচ খেলেন ৩১ বছর বয়সী এই গোলরক্ষক।

x