প্রাইভেটকারে এসে ছিনতাই তিনজনকে গণপিটুনি

হাটহাজারী প্রতিনিধি

বুধবার , ১৭ জুলাই, ২০১৯ at ১২:৪১ অপরাহ্ণ
129

হাটহাজারীতে প্রলোভন দেখিয়ে এক মহিলার কাছ থেকে স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় তিনজনকে ধরে গণপিটুনি দিয়েছে এলাকাবাসী। গতকাল মঙ্গলবার সকাল পৌনে ৯টার দিকে উপজেলার ছিপাতলী ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। সংবাদ পেয়ে থানা পুলিশ একটি প্রাইভেট কারসহ তিন ছিনতাইকারীকে গণরোষ থেকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করে।
গণপিটুনির শিকার তিনজন হলেন, লোহাগাড়া উপজেলার আদুনগর ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবদুল মালেক (৬০), একই ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের শাহী পাড়ার নুর ইসলাম (৬০) এবং পদুয়া ইউনিয়নের মৌলভীপাড়ার বাসিন্দা প্রাইভেটকার চালক নুর কবির (২৮)।
জানা যায়, তিন ছিনতাইকারী একটি প্রাইভেট কার নিয়ে এসে হাটহাজারী উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন এলাকায় একজন মহিলাকে প্রলোভন দেখিয়ে তার স্বর্ণালংকার হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় মহিলার চিৎকারে কয়েকজন স্থানীয় যুবক মোটরসাইকেল নিয়ে প্রাইভেটকারটি ধাওয়া করে। ছিনতাইকারীরা ইছাপুর বাজার দিয়ে উত্তর মেখল হয়ে ছিপাতলী এলাকায় চলে যায়। ছিপাতলীতে পৌঁছে বন্যার কারণে তাদের গাড়ি আটকা পড়ে যায়। এসময় ধাওয়াকারী ও স্থানীয় জনতা তিনজনকে ধরে গণপিটুনি দেয়। তাদের ব্যবহৃত প্রাইভেট কারটিও (চট্টমেট্রো-ক-১৩-৮৬৪০) এসময় আগুনে পুড়িয়ে দেয় স্থানীয় বিক্ষুব্ধ জনতা।
উপজেলার গুমানমর্দ্দন ইউপি চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান জানান, তিনি ছিপাতলী ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আহসান লাভুর ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে যান। এসময় তিন ছিনতাইকারীকে একটি প্রাইভেট কার ফেলে দৌড়ে পালিয়ে যেতে দেখেন। ছেলেধরা গুজবে স্থানীয় লোকজন তাদের গণপিটুনি দেয়।
হাটহাজারী থানার ওসি বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর বলেন, গণপিটুনির শিকার আহত তিন ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তারা ছিনতাইকারী চক্রের সদস্য। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

x